রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯, ২ ভাদ্র ১৪২৬

ছুটির দিনেও নড়াইলের পথে প্রান্তরে মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৮:১৩ পিএম

ছুটির দিনেও নড়াইলের পথে প্রান্তরে মাশরাফি

ছবি সংগৃহীত

ঢাকা: মাত্র শেষ হয়েছে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল)। সামনে বিশ্বকাপের ব্যস্ততা। তার আগে ত্রিদেশীয় সিরিজ। এসব বিবেচনায় বিশ্বকাপ স্কোয়ার্ডে থাকা খেলোয়াড়দের দুই দিনের ছুটি দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ছুটি পেয়ে যে যার মতো করে সময় কাটাচ্ছেন। কিন্তু ব্যাতিক্রম শুধু মাশরাফি বিন মুর্তাজা।

ছুটির দিনে বিশ্রাম না নিয়ে নড়াইলের পথে প্রান্তরে ছুটে বেড়াচ্ছেন জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি। কারণ, তিনি নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য। এই্ এলাকার ভাল মন্দের দেখ ভালের দায়িত্ব তার উপর। এলাকার উন্নয়ন কাজের গতি দেখতে ছুটে বেড়ালেন তিনি।

মাশরাফি বলেন, ‘আমিও কিন্তু নড়াইল শহরের সড়ক ও জনপথের রাস্তার ওপর বসবাস করি, আমার নানা বাড়ি পড়ছে, আমার নানা বাড়ি যদি পড়ে সবার আগে আমার নানা বাড়ি ভাঙ্গবেন।’ বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) নড়াইল জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা ও সুধীজনের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।

সম্প্রতি নড়াইল সদর থানার কোমখালী গ্রামের এক শিশু কন্যার পা কেটে নেয় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় দুঃখ ও ক্ষোভ প্রকাশ করে মাশরাফি বলেন, এলাকায় কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রম হতে দেয়া যাবে না। এসব সন্ত্রাসীদের কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবে না। চিহ্নিত দুস্কৃতিকারীরা ছাড় পেলে সমাজ এগোবে কিভাবে?'

নড়াইলকে মডেল জেলা ও সুন্দর বাসযোগ্য 'ক্লিন নড়াইল গ্রিন নড়াইল' গড়তে স্থানীয় প্রশাসনসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘নড়াইলের উন্নয়নে মাস্টার প্ল্যান করেছি। আমরা একটি পরিকল্পিত মডেল নড়াইল জেলা গড়তে চাই। ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছি। নড়াইল পৌরসভার উন্নয়নে ইতিমধ্যে পাঁচ কোটি ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন নদী তীরবর্তী এলাকায় ভাঙনরোধে কাজ করে চলেছি।'

এ সময় দুর্নীতিকে প্রশ্রয় না দিয়ে বিভিন্ন দফতরে স্বচ্ছতা, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান মাশরাফি। তিনি বলেন, ব্যক্তিগত সহযোগিতা বা চাকরির তদবিরের জন্য না এসে আমাকে এলাকার উন্নয়নে পরামর্শ দিন।

সংসদ সদস্য হিসাবে এলাকার উন্নয়ন তদারকির ফাঁকেই বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়ে নিয়েছেন মাশরাফি। আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত মাশরাফি নড়াইলেই অবস্থান করবেন। তারপর জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দিতে ঢাকায় আসবেন।

কিছু দিন আগে নিজের এলাকার জন্য বরাদ্দ পেতে বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয়ে গিয়েছিলেন নড়াইল-২ আসনের সাংসদ ও বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, ধর্ম মন্ত্রণালয় ও পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ে যান।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue