মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০১৯, ৪ আষাঢ় ১৪২৬

ছেলের ঘরে গিয়ে মা দেখলেন ধর্ষিতার রক্তক্ষরণ হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১২:০৯ পিএম

ছেলের ঘরে গিয়ে মা দেখলেন ধর্ষিতার রক্তক্ষরণ হচ্ছে

বরিশাল: জেলার উজিরপুর উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের বান্না গ্রামে ১৩ বছর বয়সী এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে রাকিব গাজী (১৮) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এদিকে ঘটনার পরপরই স্থানীয় বান্না ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য হানিফ হাওলাদার বিষয়টি ধামাচাপা দেয়া এবং এ ঘটনায় মামলা না করার জন্য কিশোরীর পরিবারকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুধু তাই নয়, প্রাথমিকভাবে মীমাংসা না করতে পেরে ওই ইউপি সদস্য ধর্ষক রাকিবকে এলাকা থেকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেন বলে জানিয়েছে কিশোরীর পরিবার।

এদিকে ধর্ষণের ঘটনায় বুধবার সকালে বাবা বাদী হয়ে বখাটে রাকিব গাজীকে আসামি করে উজিরপুর থানায় মামলা করেন। রাকিব গাজী গুঠিয়া ইউনিয়নে বান্না গ্রামের জাফর গাজীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রাকিব গাজী ও কিশোরীর বাড়ি পাশাপাশি। মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে রাকিব গাজীর মা ও কিশোরীর মা কিস্তি দিতে বাড়ি থেকে দূরে এনজিও আশার কার্যালয়ে যান। এ সুযোগে মেয়েটিকে কৌশলে নিজেদের ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে রাকিব। একপর্যায়ে ব্যথা ও রক্তক্ষরণে মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে রাকিব তাকে ফেলে পালিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর রাকিবের মা ঘরে ফিরে মেয়েটিকে রক্তক্ষরণ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। তিনি মেয়েটির জ্ঞান ফেরানোর চেষ্টা করেন।

ওই সময় মেয়ের মা মেয়েকে কোথাও খুঁজে না পেয়ে রাকিবের বাড়িতে যান। সেখানে গিয়ে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পান। পরে সেখান থেকে মেয়েটিকে বানারীপাড়ার চাখার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক মেয়েটির অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির নির্দেশ দেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মেয়েটিকে বরিশাল মেডিকেলে ভর্তি করা হয়।

এদিকে ঘটনার পরপরই ইউপি সদস্য হানিফ হাওলাদার ধর্ষক রাকিব গাজীর পক্ষ নিয়ে বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় মামলা না করার জন্য মেয়েটির পরিবারকে হুমকি দেন। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে ইউপি সদস্য হানিফ হাওলাদারের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী ক্ষোভ করেন।

উজিরপুর থানা পুলিশের ওসি শিশির কুমার পাল জানান, মেয়েটিকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামি রাকিব গাজীকে গ্রেপ্তার করতে প্রচেষ্টা চলছে। রাকিব গাজীকে পালিয়ে যেতে ইউপি সদস্য হানিফ হাওলাদার সহায়তা করেছে এমন কোনো অভিযোগ বাদী এজাহারে উল্লেখ করেননি। তারপরও বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। রাকিব গাজী পালানোর ব্যাপারে ইউপি সদস্য হানিফ হাওলাদার সহায়তার প্রমাণ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue