রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯, ৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

জগন্নাথপুরে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিল সোনার বাংলা সমাজ কল্যাণ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার ০৯:৩৬ পিএম

জগন্নাথপুরে শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিল সোনার বাংলা সমাজ কল্যাণ

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি : সোনার বাংলা সমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে সুনামগঞ্জে ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণীর প্রাথমিক মেধা বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণী ১৮ অক্টোবর শুক্রবার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার সকাল থেকে সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার বাউধরণের গয়াসপুর গ্রামের গয়াসপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ বৃত্তি বিতরনী অনুষ্ঠিত হয়।

এতে অংশগ্রহণ করে জগন্নাথপুর উপজেলার প্রায় ১৩টি স্কুল। এর মধ্যে রয়েছে গয়াসপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোপরাপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, শালদিঘা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, নাচনী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বেতাউকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বেরী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, খাগাউরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, রৌয়াইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বালিশ্রী আলতাব আলী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাউধরণ দক্ষিণ পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বাসুদেব স্বরণ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, আর্দশ শিশু একাডেমী ও হাজী মকবুল হোসেন একাডেমি। ৪র্থ শ্রেণীর ৩জন ও ৫ম শ্রেণীর ৩জন করে মোট ৭৮ জন শিক্ষার্থী এই বৃত্তিতে অংশগ্রহণ করে যার মধ্যে ৪র্থ শ্রেণীর ৫জন ও ৫ম শ্রেণীর ৫ জন বৃত্তি লাভ করেন।

বিজয়ী ছাত্র-ছাত্রী ও বিদ্যালয়ের নাম নিম্নে দেওয়া হইলো

৪র্থ শ্রেণীর বিজয়ীদের তালিকা-
১ম, মোঃ বিলাওয়াল হুসাইন, ১৫৩ নং গয়াশপুর সসরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।
২য়, তাছনিয়া তাহসিন মিনা, হাজী মকবুল হোসেন একাডেমী।
৩য় সাদিয়া বেগম, আর্দশ শিশু একাডেমী। ৪র্থ আমিনা আক্তার শুভা, ৪৭নং বেতাউকা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।
৫ম ছামিরা আক্তার নিঝু, সালদিঘা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।

৫ম শ্রেণীর বিজয়ীদের তালিকা-
১ম জৈতা সূত্রধর, ১৫৩ নং গয়াশপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।
২য় রাহুল তালুকদার, ৪৫ নং গোপড়াপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়
৩য় মোঃ আদনান ফিদা, বেরী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।
৪র্থ মোছাঃ সোনিয়া আক্তার তমা, নাচনী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়
৫ম ফাগ্লুনী সুত্রধর, ৪৫ নং গোপড়াপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়।

অনুষ্ঠানে আয়োজক সংস্থার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাদের বক্তব্যে বলেন, প্রতি বছরের মতো এবারও শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। সকলের সহযোগিতায় এই ধারা বজায় রাখতে চাই। আমরা জানি আমাদের দেশের অনেক অঞ্চলেই মেধাবী শিক্ষার্থীরা রয়েছে যাদের পড়াশোনা পরিবারের পক্ষে চালানো সম্ভব নয়। তাই আগামীতে আরো বেশি বেশি শিক্ষার্থীদের বৃত্তি দেওয়ার ব্যাপারে সোনার বাংলা সমাজ কল্যাণ সংস্থা বদ্ধপরিকর।

এছাড়াও এবছরের ৮ নভেম্বর আবারও বৃত্তি দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয় সংগঠনটির পক্ষ থেকে। সেই সাথে প্রত্যেক স্কুলের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিবাবকদের উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue