শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

জাপার মনোনয়ন পাচ্ছেন না বর্তমান ১০ এমপি!

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার ০১:৩০ পিএম

জাপার মনোনয়ন পাচ্ছেন না বর্তমান ১০ এমপি!

ঢাকা : জাতীয় পার্টির (জাপা) বর্তমান অন্তত ১০ এমপি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের মনোনয়ন পাচ্ছেন না। এসব আসনে আসছে নতুন মুখ। তাদের মধ্যে রয়েছেন বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী ও অবসরপ্রাপ্ত সামরিক কর্মকর্তা। জাপার শীর্ষ পর্যায়ের একাধিক নেতা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের নেতৃত্বে থাকা প্রধান শরিক আওয়ামী লীগের কাছে প্রথম দফায় ১০৫টি আসনের তালিকা দেওয়ার পর দ্বিতীয় দফায় ৭৬ আসনের তালিকা দেয় হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি। এর মধ্যে মহাজোটের কাছ থেকে এ পর্যন্ত ২৫ থেকে ৩০টি আসন পাওয়ার নিশ্চয়তা পেয়েছে দলটি। তবে আসন বণ্টন নিয়ে দেন দরবার চলছে এখনো। শেষ পর্যন্ত তাদের আসন সংখ্যা ৪০টিতে দাঁড়াতে পারে।

গত শনিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দ্রুত মহাজোটের আসন বণ্টনের আলোচনা চেয়ে চিঠি পাঠান জাপা চেয়ারম্যান এরশাদ। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ভোটে আসায় মহাজোটের কাছ থেকে কাঙ্ক্ষিত আসন পাওয়ার সম্ভাবনা কমেছে জাপার। এছাড়া পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্যদের বেশির ভাগই জনবিচ্ছিন্ন বলে অভিযোগ দলটির তৃণমূল নেতাকর্মীদের।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ২১টিসহ ৩৪টি আসনে জয়লাভ করে জাপা। পরে উপ-নির্বাচনে একটি আসনে জয়ী হলে এবং পিরোজপুর-৩ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মো. রুস্তম আলী ফরাজী জাতীয় পার্টিতে যোগ দিলে এ দলের সংসদ সদস্যের সংখ্যা দাঁড়ায় ৩৬।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ রংপুর-৩ এবং সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশন এরশাদ ময়মনসিংহ-৪ আসনসহ দলের অন্যান্য এমপিরা হলেন মো. শওকত চৌধুরী নীলফামারী-৪, মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা  রংপুর-১, একেএম মোস্তাফিজুর রহমান কুড়িগ্রাম-১, মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরী কুড়িগ্রাম-২, আক্কাছ আলী কুড়িগ্রাম-৩, শামীম হায়দার পাটোয়ারী গাইবান্ধা-১, শরিফুল ইসলাম জিন্নাহ বগুড়া-২, মো. নূরুল ইসলাম তালুকদার বগুড়া-৩, মো. নূরুল ইসলাম ওমর বগুড়া-৬, মুহম্মাদ আলতাফ আলী বগুড়া-৭, এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার পটুয়াখালী-১, নাসরিন জাহান রত্না বরিশাল-৬, মোহা. মামুনুর রশিদ জামালপুর-৪, সালাহউদ্দিন আহমেদ (মুক্তি) ময়মনসিংহ-৫, এম. এ. হান্নান ময়মনসিংহ-৭, ফখরুল ইমাম ময়মনসিংহ-৮, মো. মুজিবুল হক কিশোরগঞ্জ-৩, সালমা ইসলাম ঢাকা-১, সৈয়দ আবু হোসেন ঢাকা-৪, কাজী ফিরোজ রশীদ ঢাকা-৬, লিয়াকত হোসেন খোকা নারায়ণগঞ্জ-৩, একেএম সেলিম ওসমান নারায়ণগঞ্জ-৫, পীর ফজলুর রহমান সুনামগঞ্জ-৪, মো. ইয়াহইয়া চৌধুরী সিলেট-২, সেলিম উদ্দিন সিলেট-৫, মোহাম্মদ আবদুল মুনিম চৌধুরী হবিগঞ্জ-১, অ্যাডভোকেট মো. জিয়াউল হক মৃধা ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২, মোহাম্মদ আমির হোসেন কুমিল্লা-২, নূরুল ইসলাম মিলন কুমিল্লা-৮, মোহাম্মদ নোমান লক্ষ্মীপুর-২,  আনিসুল ইসলাম মাহমুদ চট্টগ্রাম-৫, জিয়া উদ্দীন আহমেদ (বাবলু) চট্টগ্রাম-৯ এবং মোহাম্মদ ইলিয়াছ কক্সবাজার-১ আসন।

জাপা সূত্র জানায়, এসব এমপির মধ্যে এবার যাদের মনোনয়ন না পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তারা হলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য এমএ হান্নান ময়মনসিংহ-৭। যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে তার বিচার চলছে। ওই আসনে আর এমএ হান্নানকে চায় না জোটের প্রধান দল আওয়ামী লীগ।

এ ছাড়া মোহাম্মদ ইলিয়াছ (কক্সবাজার-১), সালাহউদ্দিন আহমেদ (মুক্তি) (ময়মনসিংহ-৫), মোহাম্মদ আমির হোসেন (কুমিল্লা-২), মোহাম্মদ নোমান (লক্ষ্মীপুর-২), নূরুল ইসলাম মিলন (কুমিল্লা-৮), মো. ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী (সিলেট-২) এবং জামালপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোহা. মামুনুর রশিদ এবার মনোনয়ন না পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি। অন্যদিকে, সৈয়দ আবু হোসেন (ঢাকা-৪) এবং কাজী ফিরোজ রশীদ (ঢাকা-৬) এ দুটি আসনের যেকোনো একটি হাতছাড়া হতে পারে জাতীয় পার্টির।

এ ছাড়া দলের চেয়ারম্যান এরশাদ নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে প্রার্থী হলে হাতছাড়া হতে পারে লিয়াকত হোসেন খোকার (নারায়ণগঞ্জ-৩) আসনটিও। রুহুল আমিন হাওলাদার (পটুয়াখালী-১) এবং তার স্ত্রী নাসরিন জাহান রত্না (বরিশাল-৬) আসনের যেকোনো একটি হাতছাড়া হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

এ ক্ষেত্রে রুহুল আমিন হাওলাদার বরিশাল-৬ অথবা পটুয়াখালী-১ আসন থেকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন। এসব সংসদ সদস্যের পরিবর্তে নতুন মুখ আসছে জাপায়। পাশাপাশি বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ী ও অবসরপ্রাপ্ত সামরিক কর্মকর্তা জাপার মনোনয়ন পেতে পারেন এবার।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার জানান, আওয়ামী লীগের কাছে আমাদের দেওয়া তালিকা ধরে আসন বণ্টন হবে। আসন বণ্টন নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতিকে আমাদের চেয়ারম্যান ইতোমধ্যে চিঠিও দিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহানুভব ব্যক্তি। জাতীয় পার্টি যতটি আসনে নির্বাচন করলে ভালো হবে, প্রধানমন্ত্রী ততটি আসন দেবেন বলে বিশ্বাস তার। তবে জাতীয় পার্টিকে কতটি আসন দেওয়া হতে পারে তার উত্তর দেননি জাপা মহাসচিব।

সোনালীনিউজ/এমটিআই