মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে কলঙ্ক, বোর্ডই নিষিদ্ধ

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২২ জুন ২০১৯, শনিবার ০৮:৫৫ পিএম

জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটে কলঙ্ক, বোর্ডই নিষিদ্ধ

ছবি সংগৃহীত

ঢাকা: বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি তারা। কিন্তু এই বিশ্বকাপের মধ্যেই চূড়ান্ত বিপাকে জিম্বাবুয়ে। নিষিদ্ধ করা হলো সে দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে। শুক্রবার দেশটের সরকারি সংস্থা স্পোর্টপ অ্যান্ড রিক্রিয়েশন কমিশনের (এসআরসি) তরফে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নিষেধাজ্ঞার কথা জানিয়ে দেওয়া হয়। বোর্ডের পাশাপাশি বোর্ডের কার্যকরী ম্যানেজিং ডিরেক্টর গিভমোর মাকোনিকেও তাঁর পদ থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

সঙ্গে এও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, আপাতত দেশের ক্রিকেট যাতে ক্ষতিগ্রস্থ না হয়, তার জন্য একটি অন্তর্বর্তী কমিটি গঠন করা হয়েছে। যেখানে রয়েছেন, ডেভিড এলম্যান-ব্রাউন, আহমেদ ইব্রাহিম, চার্লি রবার্টসন, সিপরিয়ান ম্যাডেঞ্জ, রবার্টসন, সেকেসাই এবং ডানকান ফ্রস্ট। তাঁরাই আপাতত সমস্ত দায়িত্ব সামলাবেন।

কিন্তু কী এমন হলো যে গোটা বোর্ডকেই এমন চরম শাস্তির মুখে পড়তে হলো? ঘটনার সূত্রপাত সপ্তাহখানেক আগে। স্পোর্টস অ্যান্ড রিক্রিয়েশন কমিশনের কাজ দেশের সমস্ত ক্রীড়া সংস্থা এবং বোর্ডগুলো ঠিকমতো কাজ করছে কি না, তা দেখা। সেই কমিশনই জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বোর্ডের কার্যকলাপ খুঁটিয়ে দেখার দায়িত্ব নিয়েছিল। আর তদন্তে নেমেই তারা জানতে পারে, একাধিক দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েছে বোর্ড।

বার্ষিক সাধারণ সভায় মনোনয়নের প্রক্রিয়ায় যেমন দুর্নীতি ধরা পড়েছে, তেমনই বেশ কিছু সাংবিধানিক নিয়মও ভঙ্গ করেছে তারা। শুধু তাই নয়, আর্থিক তছরুপ, পক্ষপাতিত্বসহ অনেক দুর্নীতিতেই জড়িয়েছে বোর্ড। যা নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। কমিশন সতর্ক করা সত্ত্বেও বোর্ড তাতে কর্ণপাত করেনি। এরই মধ্যে ফের তাভেঙ্গা মুকুলানিকে চার বছরের জন্য নির্বাচিত করা হয়। আর তারপরই নেওয়া হয় এই সিদ্ধান্ত। এসআরসি আইন মেনেই বোর্ডকে নিষিদ্ধ করা হয়। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেট ইতিহাসে যা নিঃসন্দেহে কলঙ্কিত দিন।

সোনালীনিউজ/আরআইবি/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue