সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

জুমার দিনের ১ আমলে হাজার বছরের নামাজ-রোজার সাওয়াব মেলে

নিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার ০১:০২ এএম

জুমার দিনের ১ আমলে হাজার বছরের নামাজ-রোজার সাওয়াব মেলে

ঢাকা : জুমার দিনের আমলের অনেক ফজিলত হাদিসে বর্ণনা করা হয়েছে। কিন্তু জুমার দিনের এমন একটি আমল রয়েছে, যা পাঁচটি শর্ত মেনে আদায় করলে হাজার হাজার বছরের নফল নামাজ ও রোজার সাওয়াব পাওয়া যায়।

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি জুমার দিন ৫ কাজ করার মাধ্যমে ১টি আমল করবে। অর্থাৎ জুমার নামাজ পড়তে আসবে। আল্লাহ তাআলা ওই ব্যক্তির মসজিদে আসার প্রতি কদমে ১ বছরের নফল নামাজ ও নফল রোজার সাওয়াব দান করবেন।

কাজ ৫টি হলো-

১. জুমআর দিন গোসল করা।

২. আগে আগে মসজিদে আসা।

৩.  পায়ে হেঁটে মসজিদ আসা।

৪. ইমামের কাছাকাছি বসা। এবং

৫. মনোযোগ দিয়ে খোতবা শোনা।

আমলের সাওয়াব : জুমআর দিন এ পাঁচটি কাজের আমল করলে আল্লাহ তাআলা জুমআ আদায়কারী ওই ব্যক্তির প্রতি কদমে ১ বছরের আমলের সাওয়াব দেবেন।

কী আমলের সাওয়াব দেবেন। তাও হাদিসে বলেছেন প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। আর তাহলো ১ বছরের নফল নামাজ ও নফল রোজার সাওয়াব।

বাড়ি থেকে মসজিদে আসতে যে কয় পদক্ষেপ বা কদম হেঁটে আসবে, ওই ব্যক্তি তত বছর নফল নামাজ ও নফল সাওয়াবের অধিকারী হবে।

ধরা যাক : কোনো ব্যক্তির বাড়ি থেকে মসজিদে আসতে ১০০ কদম হাটা লাগে। ওই ব্যক্তি যদি উল্লেখিত ৫ কাজ মেনে জুমআর দিন আমল করে তবে তার আমল নামায় ১০০ বছরের নফল নামাজ ও নফল রোজার সাওয়াব যোগ হবে।

হাদিস বিশারদদের মতে, জুমআর দিনের এ আমলের সুযোগের চেয়ে বেশি আমলের সুযোগ লাভের কোনো মাধ্যম নেই।

বিখ্যাত তাবেয়ী সাঈদ ইবনুল মুসাইয়্যিব বলেন, ‘আমার কাছে নফল হজ করার চেয়ে বেশি উত্তম শুক্রবারের আমল করা।’

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে শুক্রবারের এ আমলটি যথাযথভাবে আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই