রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬

ডিম চাওয়ায় ৩ বছরের শিশুর প্যান্টের ভেতর ঢালা হলো গরম খিচুড়ি!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৬ মে ২০১৯, রবিবার ১০:২৪ এএম

ডিম চাওয়ায় ৩ বছরের শিশুর প্যান্টের ভেতর ঢালা হলো গরম খিচুড়ি!

ঢাকা: অঙ্গনওয়াড়িতে দেওয়া খিচুড়ির সঙ্গে একটা ডিম বেশি চেয়েছিল তিন বছরের ছোট্ট শিশু। সেটাই নাকি অপরাধ। আর সেই অপরাধের শাস্তিস্বরূপ শিশুর প্যান্টের ভিতর গরম খিচুড়ি ঢেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর বিরুদ্ধে।

মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জের খিদিরপুরে ঘটনাটি ঘটেছে।

জানা গেছে, অত্যন্ত আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশুটি জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। পুলিশ ইতিমধ্যেই অঙ্গনওয়াড়ির শিক্ষক এবং কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে।

পুলিশ ও শিশুটির পরিবার সূত্রে খবর, কাকভোরে ঘুম থেকে উঠে পড়েছিল। সেভাবে কিছুই খাওয়া হয়নি। অভ্যাসের বশে কাঁধে ব্যাগ এবং হাতে কৌটো নিয়ে রওনা হয়েছিল স্কুলের উদ্দেশ্যে। বছর তিনেকের খুদে স্কুলে গিয়ে বই খুলে বসেছিল। কিন্তু বুঝতে পারে খিদে পেয়েছে।

অঙ্গনওয়াড়ির নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী খিচুড়ি পেয়েছিল শিশুটি। মিলেছিল একটি ডিম। কিন্তু তাতে মন ভরেনি তার। তাই আরেকটি ডিম চায়। কিন্তু শিশুর দাবি শুনে চটে যায় অঙ্গনওয়াড়ির এক কর্মী। অভিযোগ, ওই মহিলা শিশুর প্যান্টের ভিতর খিচুড়ি ঢেলে দেয়। শরীরে নিম্নাংশ প্রায় সম্পূর্ণই পুড়ে যায় তার।

সাধারণত সকাল ৯টায় ছুটি হয় মুর্শিদাবাদের রঘুনাথগঞ্জের অঙ্গনওয়াড়িতে। শিশুটিকে তাঁর মা অঙ্গনওয়াড়িতে দেওয়া-নেওয়া করেন। কিন্তু এদিন বেশ কিছুটা আগেই কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরে আসে একরত্তি। দুচোখে পানি ভরে গিয়েছে তার।

প্রথমে কিছুই বাড়িতে বলতে চায়নি সে। এরপর খুদে আধো আধো গলায় মাকে বলেন, ‘এক দিদিমণি তার প্যান্টে গরম খিচুড়ি ঢেলে দিয়েছে।’ একথা শুনেই অঙ্গনওয়াড়িতে ছুটে যান শিশুর পরিজনেরা। তবে তখন শিক্ষিকারা এই ঘটনায় কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি।

তড়িঘড়ি শিশুকে কোলে নিয়ে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে ছুটে যান তাঁরা। সেখানেই আপাতত ভরতি রয়েছে সে। খুদের নিম্নাংশ প্রায় পুরোটাই পুড়ে গিয়েছে।

এই ঘটনায় ওই অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। ইতিমধ্যে অঙ্গনওয়াড়ির শিক্ষক এবং কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে। এই ঘটনাটি যে শুনছেন, সেই শিউরে উঠেছেন। কীভাবে একজন মহিলা এমন নৃশংস কাণ্ড ঘটাতে পারে, তা নিয়েই চলছে জোর আলোচনা।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue