বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

ঢাবিতে ভর্তিযুদ্ধ শুরু হচ্ছে শুক্রবার

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১০:০৬ পিএম

ঢাবিতে ভর্তিযুদ্ধ শুরু হচ্ছে শুক্রবার

ঢাকা : বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিটের পরীক্ষার মাধ্যমে আগামী শুক্রবার থেকে ২০১৯-২০ সেশনের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। সকাল ১০টা খেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত ক্যাম্পাসসহ মোট ৫৬টি কেন্দ্রে এক যোগে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, চলতি বছরে ‘গ’ ইউনিটে এক হাজার ২৫০ আসনের বিপরীতে ২৯ হাজার ৫৮ জন প্রার্থী পরীক্ষায় অংশ নেবে।

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে সমান সংখ্যক আসনের বিপরীতে ২৭ হাজার ৫৩৪ জন আবেদন করেছিলেন। প্রতি আসনে লড়েন ২২ জন। এবার প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ২৩ জন ভর্তিচ্ছু।

এ দিন ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন। ভর্তি পরীক্ষার সিট-প্ল্যান বিশ্ববিদ্যালয়ের admission.eis.du.ac.bd ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।

বিজনেস অনুষদের ডিন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াতুল ইসলাম বলেন, ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন। কিছু গোপনীয় কাজ বাকি। আমরা সুষ্ঠুভাবে ভর্তি পরীক্ষার কার্যক্রম সম্পন্ন করতে কাজ করছি। প্রশ্নপত্র প্রণয়নও নিজস্ব প্রেসে করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

৭৫ নম্বরের নৈর্ব্যক্তিক ও ৪৫ নম্বরের লিখিত পদ্ধতির মাধ্যমে এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন নিয়মে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ৯০ মিনিটের পরীক্ষা। নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষার জন্য ৫০ মিনিট এবং লিখিত পরীক্ষার জন্য সময় থাকবে ৪০ মিনিট।

প্রতিটি নৈর্ব্যক্তিকের জন্য ১.২৫ নম্বর বরাদ্দ থাকবে। প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য কাটা যাবে ০.২৫ নম্বর। লিখিত অংশে প্রশ্নের মান ২ থেকে ৫-এর মধ্যে হবে। পরীক্ষায় পাস করতে হলে প্রার্থীকে নৈর্ব্যক্তিক অংশে ৩০ এবং লিখিত অংশে ১২ নম্বরসহ মোট ৪৮ নম্বর পেতে হবে। বিষয়ভিত্তিকভাবেও পরীক্ষার্থীদের পাস করতে হবে।

বরাবরের মতো এবারও পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন বা টেলিযোগাযোগ করা যায় এরূপ কোনো ইলেকট্রনিক ডিভাইস/যন্ত্র সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষা চলাকালে ভ্রাম্যমাণ আদালত দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানানো হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভর্তি জালিয়াতদের বিষয়ে সবসময় সতর্ক ও সক্রিয়। এই বিশ্ববিদ্যালয় মেধাবীদের জায়গা। ভর্তি জালিয়াতদের প্রমাণ পেলেই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবন বহিষ্কার করা হবে। প্রশাসন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করছে।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue