বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬ ফাল্গুন ১৪২৬

তাপসের আসনে প্রার্থী তার স্ত্রী আফরিন

নিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার ০৬:৩০ পিএম

তাপসের আসনে প্রার্থী তার স্ত্রী আফরিন

ঢাকা: আসন্ন ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে সাংসদ ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস প্রার্থী হলে তার আসনে (ঢাকা-১০) উপনির্বাচনে প্রার্থী করা হবে তার স্ত্রী আফরিন তাপসকে। দলের হাইকমান্ডের সঙ্গে এমনই আলোচনা হয়েছে জানা গেছে তাপসের ঘনিষ্ঠজন ও দলীয় সূত্রে। 

তাপস এই আসনে পর পর তিনবারের সাংসদ। ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন সামনে রেখে গণমাধ্যম ও রাজনৈতিক অঙ্গনে এখন আলোচনার কেন্দ্রে দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকন ও সাংসদ ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস। উত্তর সিটিতে তেমন বড় কেউ নির্বাচনে আগ্রহ না দেখানোয় বর্তমান মেয়র আতিকুলের মনোনয়ন নিশ্চিত। কিন্তু দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকনের ভাগ্য বদলে গেল ব্যারিস্টার তাপসের কারণে। দলের একটা বড় অংশ মনে করছে তাপসই পাচ্ছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে মেয়র পদে ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন।

ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে সাঈদ খোকনের বিকল্প কোনো সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম প্রকাশ্যে আসেনি। কিন্তু গত বুধবার ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলে জমে ওঠে আলোচনা। বিভিন্ন মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্য শেখ ফজলে নূর তাপসের পক্ষে মনোনয়নের দাবি উঠতে থাকে। তাপসের মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাব্যতার পেছনে তারা ঢাকা-১০ আসেন উপনির্বাচনে প্রার্থী নির্ধারণ করে রাখার কথা সামনে আনছেন। 

তারা বলছেন, সাংসদ তাপস মেয়র পদে নির্বাচন করলে তার শূন্য আসনের কী হবে, সে ব্যাপারে দলের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে আলাপ সারা হয়েছে আগেই। তাই শীর্ষ মহলের সবুজ সংকেত নিয়েই মাঠে নেমেছেন তাপস।

দলীয় নীতিনির্ধারণী সূত্রে জানা গেছে, তাপস যদি দলীয় মনোনয়ন নিয়ে মেয়র নির্বাচিত হন, তাহলে ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী করা হবে তার স্ত্রী আফরিন তাপসকে। সেভাবেই তার সঙ্গে কথা হয়েছে দলের হাইকমান্ডের।

এদিকে, মেয়র সাঈদ খোকন বৃহস্পতিবার রাতে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দেখা করে কান্নাকাটি করেছেন। এবারের জন্য হলেও যেন তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়, সেই অনুরোধ করেছেন তিনি। কিন্তু এতে কোন লাভ হয়নি। 

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে দলের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে তিনি জানান, এক কঠিন সময় পার করছেন তিনি। এ সময় অঝর কান্না করেন মেয়র।

দলীয় মনোনয়ন জমার শেষ দিনে শুক্রবার খোকন ও তাপস দুজনই জমা দিয়েছেন মনোনয়ন ফরম। তাদের মধ্য থেকে কাকে বেছে নেবে দল, সেই ধোঁয়াশা কাটতে অপেক্ষা করতে হয় শনিবার সন্ধ্যা ছয়টায় গণভবনে বসতে যাওয়া আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা পর্যন্ত। শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় ওই সভায় চূড়ান্ত হয় কার হাতে দেওয়া হবে দক্ষিণের নৌকার হাল। শেষ পর্যন্তু তাপসকেই মনোনয়ন দেয়া হয়। 

সোনালীনিউজ/এমএএইচ