বুধবার, ০৮ জুলাই, ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭

ত্রাণকাজে দুর্নীতি: ৭২ জনপ্রতিনিধি বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৯ মে ২০২০, শুক্রবার ০৪:২৩ পিএম

ত্রাণকাজে দুর্নীতি: ৭২ জনপ্রতিনিধি বরখাস্ত

ঢাকা: করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট দুর্যোগ মোকাবেলায় জরুরি সরকারি ত্রাণকাজ পরিচালনায় বাধা ও অবৈধ হস্তক্ষেপ করায় এখন পর্যন্ত সারা দেশে ৭২ জন জনপ্রতিনিধিকে বরখাস্ত করা হয়েছে। 

সর্বশেষ গত বৃহস্পতিবার ত্রাণকাজ পরিচালনায় বাধা দেওয়ায় এবং টাঙ্গাইল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও)-কে মারধর ও লাঞ্ছিত করার অভিযোগে টাঙ্গাইল সদর উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা (নবীন)-কে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়। 

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হবার পর এ নিয়ে মোট ৭২ জন জনপ্রতিনিধিকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো। এদের মধ্যে ২৩ জন ইউপি চেয়ারম্যান, ৪৫ জন ইউপি সদস্য, ১ জন জেলা পরিষদ সদস্য, ২ জন পৌর কাউন্সিলর এবং ১ জন উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, ভাইস-চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা (নবীন) সরকারি জরুরি ত্রাণ তার ইচ্ছামত তালিকা বহির্ভূতভাবে তাকে প্রদান না করার কারণে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআই)ও-কে মারধর, লাঞ্ছিতকরণ, প্রাণনাশের হুমকি, হেনস্থা ও সরকারি কর্তব্যপালনে অযাচিত হস্তক্ষেপ করেছেন। 

এর আগে তিনি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের ব্রিজের টেন্ডারকাজে বাধা প্রদান ও সিডিউল বিক্রি না করার জন্য হুমকি প্রদানসহ ভূমিহীনদের জন্য দুর্যোগ সহনীয় ঘর নির্মাণে অবৈধ হস্তক্ষেপ ও পিআইও-র কাছে চাঁদা দাবি করেন। এছাড়াও তিনি করোনাভাইরাস জনিত বৈশ্বিক মহামারিতে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা হিসেবে কর্মহীনদের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে তালিকা প্রণয়নে অযাচিত হস্তক্ষেপ করেন। তার স্বীয় পদে বহাল থেকে উপজেলা পরিষদের কার্যক্রম পরিচালনা করা রাষ্ট্র বা পরিষদের স্বার্থের ক্ষতিকর হতে পারে। তাই জনস্বার্থে তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হলো।

সোনালীনিউজ/টিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue