মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট, ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬

দাদিকে খুন করার পর ফেসবুক লাইভে নাতি

বিচিত্র সংবাদ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১০ জুন ২০১৯, সোমবার ০৫:৪৪ পিএম

দাদিকে খুন করার পর ফেসবুক লাইভে নাতি

ঢাকা: দাদিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে খুন করলেন একমাত্র নাতি! ওই একই অস্ত্র দিয়ে বাবা-মাকেও আক্রমণ করেন। পরে ফেসবুক লাইভ এসে নিজের অপরাধ স্বীকার করে ২৩ বছর বয়সী ওই যুবক।

সোমবার (১০ জুন) সকালে ভারতের হুগলি জেলার ব্যান্ডেলে নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত যুবকের নাম ইন্দ্রনীল রায়। এসময় তিনি নেশাগ্রস্থ ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, সকালে বাড়ির একটি ঘরে বসেছিলেন ইন্দ্রনীলের বাবা-মা এবং দাদি। পরে হঠাৎ ইন্দ্রনীল একটি ধারালো অস্ত্র নিয়ে মা-বাবা এবং দাদিকে এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকেন। এ সময় ইন্দ্রনীলের মা-বাবা ঘর থেকে বেরিয়ে আসলেও নাতির হাতে খুন হন দাদি।

এ ঘটনায় গুরুতর চোট পান ইন্দ্রনীলের মা-বাবা। তাদেরকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ আরো জানায়, দাদিকে খুনের পর ঘরের দরজা বন্ধ করে বসেছিলেন ইন্দ্রনীল। পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙে মরদেহ উদ্ধার করে। সে সময় পুলিশের উপরেও চড়াও হন ইন্দ্রনীল। পরে বৃদ্ধার মরদেহ নিয়ে পুলিশ ঘরের বাইরে আসলে আবার দরজায় তালা লাগিয়ে দেন ওই যুবক। এসময় তিনি ফেসবুক লাইভে এসে নিজের অপরাধ স্বীকার করে জানায়, দাদিকে সেই খুন করেছে। এই ঘটনার জন্য আর কেউ দায়ী নয়। পরে ঘরের তালা ভেঙে তাকে আটক করে পুলিশ।

তবে দাদিকে কেন রাতে খুন করল ইন্দ্রনীল, সে ব্যাপারে এখনও স্পষ্ট করে কিছুই জানতে পারেনি পুলিশ। পুলিশের ধারণা, মানসিক অবসাদেই ভুগছে শ্রীরামপুর কলেজের প্রাক্তন ওই ছাত্র।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের ধারণা, দীর্ঘদিন ধরেই মাদকাসক্ত ইন্দ্রনীল। চাকরি না পাওয়ার কারণে অবসাদগ্রস্তও ছিলেন। সেই কারণেই এই খুন কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এমনকি, টাকাপয়সার কারণেই কি সে ঠাকুমাকে খুন করল, সেটাও দেখছেন তদন্তকারীরা। সূত্র: আনন্দবাজার

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue