সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২ পৌষ ১৪২৬

দুই ট্রেনের ভয়াবহ সংঘর্ষ, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার ০৩:১৩ পিএম

দুই ট্রেনের ভয়াবহ সংঘর্ষ, নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা স্টেশনে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন এবং চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তুর্ণা এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৬। এখনো অনেকে ট্রেনের নিচে চাপা পড়ে আছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।  আহত হয়েছেন শতাধিক যাত্রী।  গুরুতর আহতদের ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৮ জন পুরুষ ও ৮ নারী  এবং ১ শিশু।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) ভোর রাত ৩টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর সিলেট থেকে চট্টগ্রাম ও সিলেট-ঢাকা রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।  

আখাউড়া রেলওয়ে থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কান্তি দাস দুর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মন্দভাগ রেলওয়ে স্টেশনে সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ও চট্টগ্রামগামী আন্তঃনগর তুর্না নীশিতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সংঘর্ষ হয়। দুইটি ট্রেনের কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে।

তিনি জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনের মরদেহ দেখা যাচ্ছে। দুমড়ে-মুচড়ে যাওয়া বগির নিচে আরও মরদেহ থাকতে পারে। হতাহতদের উদ্ধার কাজ চললে।

দুর্ঘটনা কবলিত আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে থাকা সিলেট রেলওয়ে থানা পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. ইকবাল হোসেন জানান, উদয়ন ট্রেনটি তুর্না নীশিতা ট্রেনটিকে সাইড দিচ্ছিল। উদয়নের অর্ধেক বগি অন্য লাইনে ঢোকার পর বাকি বগিগুলোতে তুর্না নীশিতা ধাক্কা দিলে দুটি বগি দুমড়ে-মুচড়ে যায়।  

এদিকে উদ্ধার কাজে যোগ দিয়েছে সেনাবাহিনী, বিজিবি ও পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা কাজ করছে।  ঘটনাস্থলে দুটি রিলিফ ট্রেন যোগ দিয়েছে।  

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue