মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

দুই সন্তানকে পেতে আদালতে বাবার আহাজারি

আদালত প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার ০৯:০৮ পিএম

দুই সন্তানকে পেতে আদালতে বাবার আহাজারি

ঢাকা : দুই সন্তানকে পেতে আইনি লড়াইয়ে এক বাবা। সন্তানের জন্য হতভাগ্য এই বাবা এখন ঘুরছেন উচ্চ আদালতের দ্বারে দ্বারে। সপ্তাহে তিনদিন দুই সন্তান বাবার কাছে থাকবে হাইকোর্টের এ আদেশের বিরুদ্ধেও শ্বশুর আপিল করলে এ জটিলতার সৃষ্টি হয়।

স্ত্রীর মৃত্যুর পর দুই সন্তানকে নিয়ে যায় নানা বাড়ির লোকজন। এরপর আর সন্তানের দেখা পাননি এই বাবা। কোনো উপায় না পেয়ে পারিবারিক আদালতে মামলা করেন তিনি। সেখানে বাবার পক্ষে রায় আসে। এরপর জজ কোর্টে নানা আপিল করলে রায় স্থগিত হয়ে যায়।

থেমে থাকেনি বাবার আইনি লড়াই। দশ ও বারো বছরের দুই মেয়েকে পেতে হাইকোর্টে আবেদন করেন তিনি। সপ্তাহে তিনদিন বাবার কাছে বাকি ৪দিন নানা বাড়িতে থাকার আদেশ দেন। এ আদেশও মানেননি নানা। আপিল করেন সর্বোচ্চ আদালতে।

রোববার (১৬ জুন) আপিল বিভাগ হাইকোর্টকে দায়িত্ব দিয়েছেন বিষয়টি নিষ্পত্তির জন্য।

বাবা দিবসে সন্তানদের নিয়ে যেখানে সময় কাটানোর কথা তখন সন্তানদের কাছে পেতে এমন অমানবিক আইনি লড়াই দাগ কেটেছে সবার মনে।

ভুক্তভোগী বাবা বলেন, বাবা-মার সঙ্গে সন্তানরা সবসময় থাকে না। বিশেষ করে মেয়ে সন্তানরা। সন্তানকে সুশিক্ষিত করে গড়ে তোলা আমার দায়িত্ব, আমি সেটা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। এমন একটা দিনে আমাকে কোর্টে এসে ঘুরে বেড়াতে হচ্ছে। বাচ্চারাও আমার কাছে আসতে পারছে না।

আইনজীবীরা বলছেন, সামাজিকভাবে যে সমস্যার সমাধান সম্ভব সেসব বিষয় আদালতের কাঠগড়ায় আনা দুঃখজনক।

বাবার পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, যেখানে লিগ্যাল অভিভাবক রয়েছে সেখানে অন্য কেউ দাবি করতে পারেন না। কিন্তু সামাজিক অবক্ষয়ের কারণে এসব ঘটছে। যার কারণে মানুষ এসব নিয়ে আদালতে আসছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিবাহ বিচ্ছেদের পর সন্তান কার কাছে থাকবে এ নিয়ে আইনের দ্বারস্থ হওয়ার ঘটনা বেড়েছে। সন্তানদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে সামাজিকভাবে বিষয়গুলো সুরাহার পরামর্শ আইনজীবীদের।

সোনালীনিউজ/এমটিআই