বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৩ আশ্বিন ১৪২৬

দোকানে হাত-পা বেঁধে গৃহবধূকে ‘গণধর্ষণ’

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৫:২৭ পিএম

দোকানে হাত-পা বেঁধে গৃহবধূকে ‘গণধর্ষণ’

ময়মনসিংহ : সিএনজিতে উঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে দোকানে ঢেকে নিয়ে সাটার বন্ধ করে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আলম (৩৫) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে নান্দাইলের চৌরাস্তা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী নারী ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা।

পুলিশ জানায়, ভুক্তভোগী গৃহবধূ স্বামীর বাড়ি থেকে নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় আত্মীয়ের বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে সিএনজিযোগে ঈশ্বরগঞ্জ থেকে নান্দাইল চৌরাস্তা পেট্রল পাম্প এলাকায় আসেন। সেখান থেকে পূর্ব বারুইগ্রামের বাসিন্দা মোজাহিদ ওই গৃহবধূকে সিএনজিতে উঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে চৌরাস্তা-তাড়াইল রোডে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিয়ে আসেন।

এরপর সেখানে দোকানের সাটার বন্ধ করে গৃহবধূর হাত-পা বেঁধে মোজাহিদসহ তার চার বন্ধু গণধর্ষণ করেন। পরে খবর পেয়ে নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ ভুক্তভোগী নারীকে রাতেই উদ্ধার করে। ওই ঘটনায় নান্দাইল মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করা হয়েছে।

নান্দাইল মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল হাসেম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue