রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

‘ধর্ষণের একমাত্র শাস্তি হওয়া উচিৎ মৃত্যুদণ্ড’

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২১ মে ২০১৯, মঙ্গলবার ০৯:৫১ পিএম

‘ধর্ষণের একমাত্র শাস্তি হওয়া উচিৎ মৃত্যুদণ্ড’

ফাইল ছবি

সিরাজগঞ্জ: নারী ও শিশু নির্যাতনের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বর্তমান সরকার জঙ্গি দমন করেছে, মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে, সেখানে এ দেশে নারী নির্যাতন ও শিশু ধর্ষণ চলতে পারে না।

মঙ্গলবার (২১ মে) বিকেলে সিরাজগঞ্জে নির্মাণাধীন ট্রমা হাসপাতালের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

নাসিম বলেন, শিশু ও নারী নির্যাতনের অপরাধীদের বিশেষ ট্রাইব্যুনাল করে বিচারের মাধ্যমে তাদের ফাঁসি দিতে হবে। তবেই এদেশে নারী, শিশু নির্যাতন ও ধর্ষণ বন্ধ হবে।

তাড়াশের কলেজছাত্রী রুপা ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ধর্ষণের একমাত্র শাস্তি হওয়া উচিৎ মৃত্যুদণ্ড। যারা ঘটনা স্বীকার করবে তাদের দ্রুত বিচার নিশ্চিত করে ফাঁসি দিতে হবে। তাছাড়া এ অপরাধ কমানো সম্ভব না। এই খুনিদের কোনোভাবেই রেহাই দেয়া সম্ভব না।

এর আগে ট্রমা হাসপাতালের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে সেখানে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য দিতে গিয়ে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম হাসপাতালটির নাম ‘শেখ হাসিনা ট্রমা হাসপাতাল’ নামকরণের প্রস্তাব করেন।

এ সময় নাসিম বলেন, শেখ হাসিনা ট্রমা হাসপাতালের নির্মাণ কাজ শেষ হলে এটি হবে উত্তরাঞ্চলের দুর্ঘটনায় আহত মানুষের উন্নত চিকিৎসার নির্ভরযোগ্য প্রতিষ্ঠান।

বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিমপারে সয়দাবাদ ইউনিয়নের মুলিবাড়িতে নির্মাণাধীন এই হাসপাতালের নির্মাণ কাজে ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ১১ কোটি টাকা। ১৮ মাসে এর নির্মাণ কাজ শেষ হবে।

তিনি আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যমুনা নদীর ভাঙন থেকে সিরাজগঞ্জের মানুষকে রক্ষা করেছেন, মেডিকেল কলেজ স্থাপন করেছেন, চারলেন সড়ক নির্মাণসহ অনেক মেগা প্রকল্পে উন্নয়ন কাজ করেছেন। মমতাময়ী এই নেত্রীর নামেই সিরাজগঞ্জে ট্রমা হাসপাতাল নামকরণ সময়ের দাবি। এ বিষয়ে জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

এদিকে মুলিবাড়িতে জাতীয় নেতা শহীদ এম. মনসুর আলীর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন নাসিম। পরে মনসুর আলীর স্মৃতিবিজড়িত কুড়িপাড়ায় রতনকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত ইফতার মাহফিলে যোগ দেন।

এ সময় স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আব্দুল হামিদ, নির্বাহী প্রকৌশলী জাকির হোসেন, সিরাজগঞ্জ চেম্বারের প্রেসিডেন্ট আবু ইউসুফ সুর্য্য, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল বারী তালুকদার, প্রচার সম্পাদক শামসুজ্জামান আলো, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জিহাদ আল ইসলাম, রাশেদ ইউসুফ জুয়েল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম