শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

নকল ঠেকাতে ‘অভিনব কৌশল’

সোনালীনিউজ ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার ১১:৩৬ এএম

নকল ঠেকাতে ‘অভিনব কৌশল’

ঢাকা: পরীক্ষার হলে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ, আগের রাতে ফেসবুক বন্ধ, কেন্দ্রজুড়ে সিসি ক্যামেরার ছড়াছড়ি। কেন্দ্রে ঢুকতে শিক্ষার্থীদের মাথার চুল থেকে পায়ের তলা পর্যন্ত তল্লাশি করা হয় আমাদের দেশে। তবে, মেক্সিকোর এক শিক্ষক যা করেছেন তাকে অদ্ভূত কৌশল না বলে পারা যায় না।

পরীক্ষার্থীরা যেন একে অন্নেরটা দেখাদেখি করে লিখতে না পারে, সেজন্য তাদের মাথায় বড়সড় সাইজের একেকটা কাগজের বক্স বসিয়ে দিয়েছেন তিনি। এ ঘটনা বেশ সমালোচনার জন্ম দিয়েছে উত্তর আমেরিকার দেশটিতে। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে এমন ব্যবহারে আপত্তি তুলেছেন অভিভাবকরাও।

সম্প্রতি মধ্য মেক্সিকোর টিল্যাক্সকালা রাজ্যের একটি স্কুলে ঘটেছে এ ঘটনা। তবে মেক্সিকান এই শিক্ষকের উদ্যোগে অনুপ্রাণিত হয়েছেন কিনা তা জানা না গেলেও ব্যাংককের শিক্ষার্থীদের মাথায় ব্যন্ডের সঙ্গে কাগজ বেঁধে গলা পর্যন্ত ঢেকে দিয়ে পরীক্ষা দিয়েছিলেন।

ব্যাংককে একই  পদ্ধতির কিছুটা আধুনিকায়ন

পরীক্ষাকেন্দ্রে প্রতারণা ঠেকাতে অনেকটা একই কৌশল অবলম্বন করেছিল থাইল্যান্ডের একটি বিশ্ববিদ্যালয়। ব্যাংক ক্যাসেটসার্ট ইউনিভার্সিটিতে একটি পরীক্ষা চলাকালে শিক্ষার্থীদের মাথার দু’পাশে বড় বড় দু’টি কাগজ ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এ ছবিটিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোতে। এমন স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে জানায় ডেইলি মেইল।

মেক্সিকোর ওই শিক্ষকের নাম লুইস জুয়ারেজ টেক্সিস। তিনি পরীক্ষার সময় শিক্ষার্থীদের মাথায় কাগজের বক্স পরিয়ে দেন, যেন তারা দেখাদেখি করে লিখতে না পারে। এ নিয়ে অভিভাবকরা  প্রবল আপত্তি জানিয়ে ওই শিক্ষককে বরখাস্তের দাবি তুললেও স্কুল কর্তৃপক্ষ টেক্সিসের পাশে দাঁড়িয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশের জন্য কার্যকর অনুশীলন হয়েছে উল্লেখ করে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়েছে তারা।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue