সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

নতুন করে বিনিয়োগ পাচ্ছে পাঠাও

অর্থনীতি ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ মে ২০১৯, মঙ্গলবার ০৩:২৫ পিএম

নতুন করে বিনিয়োগ পাচ্ছে পাঠাও

ঢাকা: দেশীয় রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাও আরো বিনিয়োগ পেতে যাচ্ছে। চলতি বছরের মাঝামাঝিতেই এই বিনিয়োগ পাওয়ার বিষয়টি ঘোষণা হতে পারে। নতুন বিনিয়োগ এলে পাঠাও তাদের রাইড শেয়ারিং, কুরিয়ার সার্ভিস এবং পাঠাও ফুডের পাশাপাশি নতুন আরো কিছু সেবা যুক্ত করবে বলেও জানা গেছে।

‘ডিল স্ট্রিট এশিয়া’ নামের একটি সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, বাংলাদেশি রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান পাঠাও তাদের সিরিজ বি ইনভেস্টমেন্ট পেতে যাচ্ছে, যার পরিমাণ হতে পারে ৪০ থেকে ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর আগে এই সংবাদমাধ্যমটিই পাঠাওয়ে ইন্দোনেশিয়ার প্রতিষ্ঠান গো জ্যাকের বিনিয়োগের বিষয়টি প্রথম জানিয়েছিল।

নতুন করে সিরিজ বি বিনিয়োগ পেলে প্রতিষ্ঠানটি সাইকেল রিকশা সেবা এবং অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্ম চালু করতে পারে বলে জানায় ডিল স্ট্রিট এশিয়া।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা পারদীপ গ্রেওয়াল গত মঙ্গলবার সিঙ্গাপুরে এক সাক্ষাৎকারে নতুন বিনিয়োগ বাড়ানোর বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, আমরা আরো ৪০ থেকে ৫০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ বাড়াতে চাই। সেই লক্ষ্যে কাজ করছি।

এর আগে পাঠাওয়ে বড় বিনিয়োগ করে ইন্দোনেশিয়ার রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠান গো জ্যাক। সেটা ২০১৭ সালে। তখন প্রতিষ্ঠানটি তখন ২০ লাখ মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করে পাঠাওয়ে।

২০১৫ সালে পাঠাও কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে যাত্রা করে পরে রাইড শেয়ারিং অ্যাপ আনে। যাতে প্রথমে বাইক এবং পরে কার বা গাড়ি সেবা যুক্ত হয়।

এরপর বিনিয়োগ পেলে প্রতিষ্ঠানটি তাদের সেবায় যুক্ত করে ফুড ডেলিভারি এবং পেমেন্ট সার্ভিস। কিন্তু পেমেন্ট সার্ভিস হিসেবে পাঠাও পে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন না পেলে পরে বন্ধ হয়ে যায়।

পাঠাও তাদের রাইড শেয়ারিং সেবাটি দেশের মধ্যে ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং সিলেটে বাড়িয়েছে। এছাড়া নেপালেও রাইড শেয়ারিং সেবাটি শুরু করেছে পাঠাও।

রাইড শেয়ারিং নীতিমালা প্রণয়ন হলেও কিছু বিষয়ে আপত্তি থাকায় এখনো পুরোপুরি নিবন্ধিত প্রতিষ্ঠান হতে পারেনি কোন কোম্পানি। ১৬টি কোম্পানি নিবন্ধনের জন্য আবেদন করলেও এখনো কেউ নিবন্ধন পায়নি।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের হিসাবে, ঢাকায় পাঠাওয়ের অ্যাপে মোটরবাইক নিবন্ধন রয়েছে ২০ হাজার, আর গাড়ি দুই হাজার।

বর্তমানে পাঠাও ৮২০ কোটি টাকা বা ১০০ মিলিয়ন ডলারের কোম্পানি। নতুন বিনিয়োগ পেলে সেটি কয়েক হাজার কোটি টাকার কোম্পানিতে পরিণত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সোনালীনিউজ/ঢাকাএসআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue