শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৮, ৩০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৫

নবম ওয়েজ বোর্ডের সুপারিশ পর্যালোচনায় কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, সোমবার ০৬:২৯ পিএম

নবম ওয়েজ বোর্ডের সুপারিশ পর্যালোচনায় কমিটি

ঢাকা: সংবাদকর্মীদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধির জন্য ‘নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড, ২০১৮’র রোয়েদাদ এর সুপারিশ পর্যালোচনায় পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠন করে দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) বর্তমান সরকারের মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। রাজধানীর তেজগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রীকে আহ্বায়ক করে এই কমিটিতে রাখা হয়েছে- শিল্প, স্বরাষ্ট্র, তথ্য এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রীকে। তথ্য মন্ত্রণালয় এ কমিটির সাচিবিক দায়িত্ব পালন করবে।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে প্রজ্ঞাপন জারি করতে হবে। এজন্য ১৮ জানুয়ারির মধ্যে সুপারিশ দিতে হবে।

পাঁচটি শ্রেণিতে ১৫টি গ্রেড রয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রথম তিনটি গ্রেডে ৮০ শতাংশ এবং নিচের তিন গ্রেডে ৮৫ শতাংশ বৃদ্ধির সুপারিশ করা হয়েছে। এছাড়া ৬০-৭০ শতাংশ বাড়ি ভাড়া বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়।

আর ২০ শতাংশ হারে বৈশাখী ভাতা যুক্ত করা ও মিডিয়ার জন্য ভিন্ন একটি আইন করার সুপারিশ করা হয়েছে।

জানা গেছে, গত ৪ নভেম্বর সাংবাদিকদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ডের রোয়েদাদ এর সুপারিশ তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর কাছে হস্তান্তর করেন নবম ওয়েজবোর্ডের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হক। এই সুপারিশ মন্ত্রিসভায় উত্থাপিত হয়।

ওয়েজ বোর্ডে সাংবাদিকদের বেতন কাঠামো চূড়ান্ত করে। ২০১২ সালে সাংবাদিকদের জন্য অষ্টম ওয়েজ বোর্ড গঠন করা হয়। পরের বছর এই বোর্ড নতুন বেতন কাঠামো চূড়ান্ত করে।

২০১৫ সালে সরকারি কর্মচারীদের নতুন বেতন কাঠামো ঘোষণার পর নিজেদের নতুন বেতন কাঠামোর জন্য আন্দোলন করে আসছেন সাংবাদিকরা।

সাংবাদিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে গত জানুয়ারিতে নবম ওয়েজ বোর্ড গঠন করে তথ্য মন্ত্রণালয়।

আজকের মন্ত্রিসভা বৈঠকে বাংলাদেশ ইপিজেড শ্রম আইন, ২০১৮’ এর চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হয় বলেও জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue