শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৬

নাগরিকত্ব বিলের কারণে ভাগ হচ্ছে ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার ০৩:৩৮ পিএম

নাগরিকত্ব বিলের কারণে ভাগ হচ্ছে ভারত

ঢাকা: অল-ইন্ডিয়া-মজলিশ-এ-ইত্তেহাদুল-মুসলিমিন নেতা আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, ভারতীয় নাগরিকত্ব বিলের এনে আরও একবার দেশভাগ হতে চলেছে, কারণকে ভিত্তি করেই ভর্তি লোকসভা কক্ষে কাগজ দু’টুকরো করে দিয়েছেন।

বিজেপি সরকারের কঠোর সমালোচনা করে  তিনি আরও বলেন, সিটিজেনশিপ সংশোধনী বিল অভিসন্ধি করেই মুসলিম অভিবাসীদের দেশহীন করতে চাইছে। এই আইন হিটলারের আইনের থেকেও খারাপ। মুসলিমদের অধীনস্থ করে রাখা হচ্ছে”।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতা করে তিনি বলেন, এই বিলে ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অপমান করা হয়েছে। দল থেকে বাদ হওয়ার ইঙ্গিত দিয়ে এদিন অল-ইন্ডিয়া-মজলিশ-এ-ইত্তেহাদুল-মুসলিমিন নেতা বলেন, “আমি এর আগে দু’বার বাদ পড়েছি এবং আমি এইরকম বিষয়ে বহিষ্কার হতে তৈরি আছি'।

বিজেপি সরকারের আগ্রাসী নীতির তীব্র সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘কেন্দ্র সাধারণ মানুষের মধ্যে মুসলিমদের বিষয়ে বিশেষ ভাবনা তৈরি করছে।

সোমবার লোকসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পেশ করেছেন যা বিরোধিতা করেছে বিরোধী দলগুলি। এই বিল মূলত পাকিস্তান, বাংলাদেশ, আফগানিস্তানের ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার অমুসলিমদের ভারতীয় নাগরিকত্ব পেতে সাহায্য করবে। সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিলের বিরোধিতা করে প্রতিবাদ চলছে দেশের বিভিন্ন অংশ সহ উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতেও। 

তাই তীব্র বিরোধিতাকে ঠেকাতে দলের সব মানুষকে ৯ ডিসেম্বর থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পার্লামেন্টে অবশ্যই উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে। ছয় দশক পুরনো নাগরিকত্ব বিল সংশোধন করে পাকিস্তান, বাংলাদেশ, আফগানিস্তানের অমুসলিমদের ভারতীয় নাগরিকত্ব পেতে সাহায্য করবে। লোকসভায় কংগ্রেস এই বিলের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছে।

এতে কংগ্রেস জানিয়েছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ভারতীয় সংবিধান বিরোধী একইসঙ্গে ধর্মনিরপেক্ষ নীতি, সংস্কৃতি এবং সভ্যতা বিরোধী।

সোনালীনিউজ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue