শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯, ৩ কার্তিক ১৪২৬

নাটোরে নসিমন উল্টে শ্রমিক নিহত

নাটোর প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার ০৪:০১ পিএম

নাটোরে নসিমন উল্টে শ্রমিক নিহত

নাটোরের গাজিরবিল এলাকায় নাটোর-ঢাকা মহাসড়কে নছিমন উল্টে আকুল হোসেন (৪০) নামের এক ধান কাটার শ্রমিক মারা গেছেন। আজ শনিবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও পাঁচ শ্রমিক। তাঁদের রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও আহত শ্রমিকদের অভিযোগ, চাঁদা না পেয়ে পুলিশ ওই নছিমনের চাকা ফুটো করে দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ লোকজন লাশ নিয়ে মহাসড়ক অবরোধ করে। এতে সড়কের দুই পাশে যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে ভোগান্তিতে পড়ে বহু যাত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শী শ্রমিকরা বলেন, আজ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ছয়জন ধান কাটার শ্রমিক একটি নছিমনে করে নাটোর-ঢাকা মহাসড়ক হয়ে বনপাড়ার দিকে যাচ্ছিলেন। গাজিরবিল এলাকায় পৌঁছালে কয়েকজন হাইওয়ে পুলিশ নছিমনটি থামিয়ে দুই শ টাকা দাবি করে। নছিমনের চালক টাকা দিতে অস্বীকার করলে তারা নছিমনের চাকা ফুটো করে দেয়। ওই অবস্থাতেই নছিমনটি চলতে শুরু করলে কিছুক্ষণের মধ্যে তা উল্টে যায়। এ সময় নছিমনের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই আকুল হোসেন মারা যান এবং আরও পাঁচ শ্রমিক গুরুতর আহত হন।

পরে এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন পুলিশের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। কিছুক্ষণের মধ্যে সেখানে কয়েক শ লোক জড়ো হয়ে নিহত শ্রমিকের লাশ নিয়ে সড়ক অবরোধ করে। প্রায় দুই ঘণ্টা অবরোধের ফলে সড়কের দুই পাশে যানবাহন আটকা পড়ে। এতে যাত্রীদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়। খবর পেয়ে স্থানীয় সাংসদের কয়েকজন প্রতিনিধি ও পুলিশের কর্মকর্তারা গিয়ে ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের আশ্বাস দিলে দুপুর ৩টার দিকে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। পরে নিহত শ্রমিকের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

আহত শ্রমিক ও প্রত্যক্ষদর্শী আমিনুদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ টাকা না পেয়ে নছিমনের চাকা ফুটো করে দিয়েছিল। তাই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

তবে টাকা চাওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, পুলিশ নছিমনটি হাইওয়েতে চলাচল করতে নিষেধ করেছিল। এর আধ ঘণ্টা পর এ ঘটনা ঘটেছে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/মে

 

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue