সোমবার, ০১ জুন, ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

নিখোঁজ ফটোসাংবাদিক কাজলের খোঁজ মিলেছে বেনাপোলে

যশোর প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৩ মে ২০২০, রবিবার ১০:৩৩ এএম

নিখোঁজ ফটোসাংবাদিক কাজলের খোঁজ মিলেছে বেনাপোলে

যশোর: মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের প্রথম প্রহরে নিখোঁজ ফটোসাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজলের খোঁজ মিলেছে। শনিবার রাতে তাকে বেনাপোলে পাওয়া যায়।

বোনাপোল পোর্ট থানার ডিউটি অফিসার এসআই ওবায়দুর রহমান বলেন, শনিবার (২ মে) রাতে বিজিবি এক ব্যক্তিকে তাদের কাছে দিয়ে যান। পরে তারা জানতে পারেন এই ব্যক্তিই নিখোঁজ ফটোসাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল। তখন তিনি কাজলকে তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে ফোনে কথা বলিয়ে দেন। 

রোববার ঢাকা থেকে পরিবারের সদস্যরা শফিকুল ইসলামকে আনতে যাবেন।

বিজিবির রঘুনাথপুর ক্যাম্প কমান্ডার হাবিলদার আশেক আলী বলেন, বেনাপোলের সাদিপুর সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারত থেকে প্রবেশের সময় সাংবাদিক কাজলকে আটক করা হয়। 

বেনাপোল বন্দর থানার ওসি মামুন খান বলেন, শনিবার গভীর রাতে বিজিবি রঘুনাথপুর সীমান্ত থেকে এ ব্যক্তিকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে জানা যায়, ওই ব্যক্তি ঢাকা থেকে নিখোঁজ ফটোসাংবাদিক শফিকুল ইসলাম কাজল। বিজিবি অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে থানায় একটি মামলা করেছে। আমরা তাকে আজ কোর্টে পাঠাব।

গত ৯ মার্চ রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দৈনিক মানবজমিনের প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরী ও স্টাফ রিপোর্টার আল আমিনসহ ৩২ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাইফুজ্জামান শিখর। ওই মামলার তিন নম্বর আসামি ফটোসাংবাদিক কাজল। মামলার পরদিন ১০ মার্চ বিকেল ৩টার পর কাজল পুরান ঢাকার বকশীবাজারের বাসা থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি। রাতে বাসায় না ফেরায় ফোন করেন পরিবারের সদস্যরা।

কিন্তু মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় চকবাজার থানায় প্রথমে সাধারণ ডায়েরি করা হয়। এরপর কাজলের ছেলে মনোরম পলক বাবাকে অপহরণের মামলা করতে নিউমার্কেট ও চকবাজার থানায় ঘুরছিলেন। কোনো থানা মামলা নিতে রাজি ছিল না বলে অভিযোগ ছিল কাজলের পরিবারের। পরে হাইকোর্টের শরণাপন্ন হন তারা। এরপর ১৮ মার্চ মামলা নেয় পুলিশ। কাজলের সন্ধা

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue