শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

নির্বাচন কমিশনে ইফতার নিয়ে বৈষম্য!

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২২ মে ২০১৯, বুধবার ০৬:২৬ পিএম

নির্বাচন কমিশনে ইফতার নিয়ে বৈষম্য!

ঢাকা: বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের একটি ইফতার অনুষ্ঠানের 'মেন্যুকার্ড' সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। যেখানে বৈষম্যের অভিযোগ তুলেছেন অনেকে। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার (২১ মে) নির্বাচন ভবনের ফোয়ারা চত্বরে এই ইফতার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ইফতারে দু'ধরনের মেন্যু নির্ধারিত ছিল। অভিযোগ উঠেছে, প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদাসহ অন্যান্য কমিশনাররা একটু অভিজাত  ও বেশি পদের ইফতার খেলেও তাদের অধীনস্থ সাধারণ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা খেয়েছেন অপেক্ষাকৃত দুর্বল ও কম আইটেমের ইফতার।
ইফতার আইটেমে এমন বৈষম্য নিয়ে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিলেও এ বিষয় কেউ কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইফতারের মেনুকার্ড ভাইরাল হওয়ার পর ধর্মীয় একটি অনুষ্ঠানে এভাবে বৈষম্য করাটা অনেকে বাঁকা চোখে দেখছেন।

ভাইরাল হওয়া মেন্যু কার্ডে দেখা যাচ্ছে, একটিতে ১৪ পদের ইফতার আইটেম এবং অন্যটিতে ১১ পদ। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। রয়েল খান ফাইম নামের এক নেটিজেন মন্তব্য করেছেন, হায় রে মানুষ....ইফতার নিয়েও রাজনীতি। আল্লাহ সবাইকে হেদায়েত দান করুন।

মোহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ নামের একজন লিখেছেন, নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা ব্রাহ্মণ, অন্যরা schedule cast, সুতরাং তফাৎ তো হবেই ! চিন্তা করবেন না মহান আল্লাহ তাদেরকে অচিরেই সুনিপুণভাবে বুঝায়ে দিবেন!

মাহবুব জুয়েল লিখেছেন, ইফতার নিয়েও তারা এমন অবিবেচকের মতো কাজ কীভাবে করলো!!

সোনালীনিউজ/এমএইচএম

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue