রবিবার, ৩১ মে, ২০২০, ১৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

‘নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসিতে ঝোলাতে চাই’ নারী শুটারের রক্তে লেখা চিঠি

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার ১০:১৮ পিএম

‘নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসিতে ঝোলাতে চাই’ নারী শুটারের রক্তে লেখা চিঠি

ঢাকা: ধর্ষকদের ফাঁসিতে ঝোলানোর জন্য দাবি জোরাল করতে অভিনব এক পন্থা বেছে নিলেন ভারতের এক মহিলা শুটার। ধর্ষকের শাস্তি কার্যকর করার দায়িত্ব এবার মেয়েদের হাতেই তুলে দেওয়া হোক। এই দাবি জানিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে নিজের শরীরের রক্ত দিয়ে চিঠি লিখলেন ভারতীয় মহিলা শুটার বর্তিকা সিং। ওই চিঠিতে নির্ভয়ার চার ধর্ষককে নিজে হাতে ফাঁসিতে ঝোলাতে চান বলেও উল্লেখ করেছেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্বকারী ওই শুটার।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে পাঠানো চিঠি দেখিয়ে বর্তিকা বলেন, ‘আমি নিজের হাতে নির্ভয়াকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত চারজনের ফাঁসি দিতে চাই। এর ফলে দেশের মানুষের কাছে বার্তা পৌঁছাবে যে মহিলারাও ফাঁসি দিতে পারেন। আমার মনে হয়, এর ফলে সমাজে আমূল পরিবর্তন আসবে। আর অপরাধীরাও মহিলাদের ওপর নির্যাতন করতে ভয় পাবে। আমি চাই, দেশের সব অভিনেত্রী এবং মহিলা সাংসদরা আমার এই সাহসী উদ্যোগের সমর্থনে এগিয়ে আসুন। আশা করি এর ফলে অবস্থার পরিবর্তন হবে।’

হায়দরাবাদে ধর্ষকদের এনকাউন্টার-এর পরই নির্ভয়ার মা বিচার ব্যবস্থার দীর্ঘসূত্রিতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। ভারতের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা যখন এনকাউন্টারের নিন্দায় ব্যস্ত। ঠিক তখন হায়দরাবাদ পুলিশের পাশে দাঁড়িয়ে তাদের এই কাজকে আকুন্ঠ সমর্থন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমার মেয়েকে নৃশংসভাবে খুন করার পর সাত বছর কেটে গিয়েছে। তারপরও আমরা বিচার পাইনি। কিন্তু হায়দরাবাদের নির্যাতিতার পরিবার তা পেয়েছে। এর জন্য হায়দরাবাদ পুলিশের প্রশংসা করা উচিত।’

তাঁর এই মন্তব্যের পরেই জানা যায়, ১৬ ডিসেম্বর নির্ভয়ার চার ধর্ষকের ফাঁসি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু এক ধর্ষক অক্ষয় ঠাকুর রায় পুনর্বিবেচনার জন্য সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ায় ফের ফাঁসি স্থগিত হয়ে যায়। বিষয়টিতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে নির্ভয়ার পরিবার। ধর্ষকরা শাস্তি এড়াতে বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করছে বলে অভিযোগ জানিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন নির্ভয়ার মা।

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue