বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

নির্মাতাদের দীর্ঘ লাইন দীঘির বাসায়!

বিনোদন প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার ১২:৩৪ পিএম

নির্মাতাদের দীর্ঘ লাইন দীঘির বাসায়!

দীঘি

ঢাকা: মাত্র ছয় বছর বয়সে ৩৬টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন দীঘি। অধিকাংশ চলচ্চিত্রই ব্যবসা সফল। ২০০৬ সালে ‘কাবুলিওয়ালা’, ২০১০ সালে ‘চাচ্চু আমার চাচ্চু’ এবং ২০১২ সালে ‘এক টাকার বউ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন দীঘি।

সেই দীঘি ঢাকাই চলচ্চিত্রের এক সময়ের শিশুশিল্পী দীঘিকে এবার নায়িকা হিসেবে পেতে চায় নির্মাতারা। তার এসএসসি পাশের মধ্যে দিয়ে তোড়জোড় শুরু হয় নির্মাতাদের। কারণ দীঘির বাবা অভিনেতা সুব্রত আগেই বলেছিলেন তার পরীক্ষা শেষ হলে সে নায়িকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে। সেজন্যই নির্মাতাদের দীর্ঘ লাইন এখন দীঘির বাসায়।

অভিনেতা ডিপজলের হাত ধরেই দীঘির চলচ্চিত্রে যাত্রা শুরু হয়। তার প্রযোজিত ‘চাচ্চু’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে দীঘি তুমুল জনপ্রিয়তা লাভ করেন।  ২০১১ সালে দিঘীর মা দোয়েল মারা যান। তার পরপরই আড়ালে চলে যান তিনি। মনোযোগ দেন লেখাপড়ায়। এ বছরই এসএসসি পাশ করেন দীঘি। কিন্তু নির্মাতারা এখনই দীঘিকে নায়িকা হিসেবে পেতে উদগ্রীব। চলচ্চিত্রে নায়িকা করার জন্য তার পিছনে ধর্ণা দিচ্ছেন অনেক পরিচালক-প্রযোজক। এমনটাই জানালেন দিঘীর বাবা সুব্রত বড়ুয়া।

তিনি বলেন, ‘নির্মাতারা নাছোড়বান্দা! তারা এখনই দিঘীকে নায়িকা করতে ইচ্ছুক। তাকে নিয়ে নতুন করে চলচ্চিত্র বানাতে চায় অনেকেই। একজন পরিচালক ও প্রযোজক মিলে আমাকে ধরেছে চুক্তিপত্রে সই করার জন্য। আমি বলেছি এখনই নয়, কিছু দিন যাক আমারা নিজেদের একটু গুছিয়ে নিই। কিন্তু তারা তা মানতে নারাজ। এখন দেখা যাক কি হয়।’

বাবা সুব্রত বলেন, ‘আমার মেয়ে দীঘির ইচ্ছে আছে সে চলচ্চিত্রে অভিনয় করবে। বিজ্ঞাপনচিত্রেও কাজ করতে চায় সে। তবে তা আরো বছরখানেক পর। মাত্র এসএসসি পরীক্ষা পাশ করলো। এখন একবছর দীঘি অভিনয়ের জন্য প্রস্তুতি নেবে। এরপর কাজ শুরু করবে।’

গ্রামীণফোনের ‘বাবা জানো আমাদের একটা ময়না পাখি আছে না’ বিজ্ঞাপনচিত্রের মাধ্যমে শোবিজে কাজ শুরু হয় ছোট্ট দীঘির। এরপর তিনি চলচ্চিত্রে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় শুরু করেন। তার অভিনীত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে- লীলা মন্থন, দ্য স্পিড, চাচ্চু আমার চাচ্চু,  রিকসাওয়ালার ছেলে, অবুঝ শিশু, ১ টাকার বউ, বাবা আমার বাবা, সাজঘর, চাচ্চু, দাদীমা, কাবুলিওয়ালা ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

সোনালীনিউজ/বিএইচ