সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

নুসরাত হত্যা ভিন্ন খাতে: ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে মামলা

ফেনী প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৫ এপ্রিল ২০১৯, সোমবার ০১:৪৯ পিএম

নুসরাত হত্যা ভিন্ন খাতে: ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে মামলা

ফেনী: জেলার সোনাগাজীতে মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে (১৮) অধ্যক্ষের যৌন নিপীড়নের পর কেরোসিন ঢেলে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় বুধবার (১০ এপ্রিল) রাতে মারা যান তিনি।

এ ঘটনায় ফেঁসে যাচ্ছেন তৎকালীন সোনাগাজী মডেল থানা পুলিশের ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন। যৌন নিপীড়নের ঘটনাকে ‘নাটক’ ও পরবর্তীতে অগ্নিদগ্ধের ঘটনাকে ‘আত্মহত্যায়’ রূপ দিতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা চালিয়ে ছিলেন তিনি।

দুটি ঘটনায় অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলাসহ তার সহযোগীদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ধরনের আরও অসংখ্য অভিযোগে ১০ এপ্রিল বুধবার সোনাগাজী মডেল থানা থেকে তাকে প্রত্যাহার করা হয়।

সর্বশেষ রাফির জবানবন্দির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া এবং আপত্তিকর প্রশ্ন করায় সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ঢাকার সাইবার ক্রাইমস ট্রাইব্যুনালে মামলা করা হয়েছে। সোমবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে এই মামলা করা হয়।

এর আগে, নুসরাত হত্যায় সরাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে মামলার অন্যতম দুই আসামি নুর উদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন শামীম।

রোববার (১৪ এপ্রিল) ফেনী জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বেলা ৩টা থেকে টানা ১০ ঘণ্টার জবানবন্দিতে নুসরাত হত্যার দায় স্বীকার করেন তারা। এতে উঠে এসেছে জড়িত আরও বেশ কয়েকজনের নাম।

অধ্যক্ষ সিরাজ উদ্দৌলার নির্দেশে তারা কীভাবে হত্যার পরিকল্পনা করেছিল এবং তা বাস্তবায়নের জন্য কীভাবে কী করে তা বিস্তারিত বলেছে।

গত ৬ এপ্রিল আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে সোনাগাজী ইসলামিয়া মাদ্রাসার ছাদে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বোরখা পরিহিত কয়েকজন। পরে ১০ এপ্রিল ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার।


সোনালীনিউজ/ঢাকা/আকন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue