শনিবার, ২০ জুলাই, ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

পকেট থেকে ১০০ টাকা চুরি করায় বাবার এ কেমন নিষ্ঠুরতা!

নীলফামারী প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার ১০:৫১ পিএম

পকেট থেকে ১০০ টাকা চুরি করায় বাবার এ কেমন নিষ্ঠুরতা!

নীলফামারী: বাবার কাছে সন্তান সবচেয়ে নিরাপদে থাকার কথা। অথচ সেই সন্তানের দুই হাত রশি দিয়ে বেঁধে তাতে পেট্রল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন পাষণ্ড বাবা।

বুধবার (১৯ জুন) সকালে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার চামড়া গুদাম ক্যাম্পে এ ঘটনা ঘটে।

পেশায় কাঠমিস্ত্রি মাহমুদ আলী (৫৫) শহরের চামড়া গুদাম বিহারি ক্যাম্পের বাসিন্দা। তার ছেলে মামুন (৮) নিয়ামতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মামুন বাবার পকেট থেকে ১০০ টাকা চুরি করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন তার বাবা। ছেলেকে স্কুলে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হন তিনি। পথে সৈয়দপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় নিয়ে গিয়ে ছেলের দুই হাত দড়ি দিয়ে বাঁধেন। বোতলে করে আনা পেট্রল ঢেলে দেন দড়ির ওপর। এরপর আগুন জ্বালিয়ে দেন বাবা।

শিশুটির চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে মামুনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঘটনার পর থেকে পলাতক ছেলেটির বাবা মাহমুদ আলী।

সৈয়দপুর থানার ওসি শাহজাহান পাশা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনাটি অমানবিক। আমরা গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে দেখছি। ছেলেটির বাবা পলাতক রয়েছেন। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।

সোনালীনিউজ/এমএইচএম