শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯, ৮ ভাদ্র ১৪২৬

পদ্মা সেতুর ১৩তম স্প্যান বসবে ১৬ মে

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ মে ২০১৯, রবিবার ০১:৪৮ পিএম

পদ্মা সেতুর ১৩তম স্প্যান বসবে ১৬ মে

মুন্সীগঞ্জ : পদ্মা সেতুর ১৩তম স্প্যান বসছে ১৬ মে। ১০ মে এ স্প্যান বসার কথা থাকলেও তা এখন পেছানো হয়েছে। ৩ বি নামের এ স্প্যানটি মাওয়া প্রান্তের ১৪ ও ১৫ নম্বর খুঁটির উপর বসানো হবে।

সেই লক্ষ্যে এখন শেষ সময়ের কাজ চলছে। ইতিমধ্যে স্প্যান প্রস্তুত করা হচ্ছে। খুঁটিও প্রায় প্রস্তুত। সব ঠিক থাকলে ১৬ মে এটি মাওয়া প্রান্তে ১৪ ও ১৫ নম্বর খুঁটির উপর বসানো হবে । এর সঙ্গে পদ্মা সেতু দৃশ্যমান হবে ১৯৫০ মিটার। এর আগে মাওয়া প্রান্তে আরও একটি অস্থায়ী স্প্যান বসানো হয়েছে।

এছাড়া ৬ মে ৫ এফ নম্বর স্প্যানটি অস্থায়ী ভাবে মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তের মাঝামাঝি ২০ ও ২১ নম্বর খুঁটিতে বসানো হয়েছে।

স্প্যানটি ৩০-৩১ নম্বর খুঁটির জন্য তৈরি। কিন্তু খুটি দুটি এখনও সম্পূর্ণ না হওয়ায় এবং কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে স্প্যান রাখার জায়গা সংকুলান না হওয়ায় এটি অস্থায়ী ভাবে ২০-২১ নম্বর খুঁটির উপর বসানো হয়।

৩০-৩১ নম্বর খুঁটি সম্পূর্ণ হওয়ার পর এটি সরিয়ে নেয়া হবে। চলতি মে মাসে জাজিরা প্রান্তে আরও একটি অস্থায়ী স্প্যান বসানোর কথা রয়েছে।

স্প্যানটি ৩২-৩৩ নম্বর খুঁটির ওপর স্থায়ী ভাবে বসানো হবে। কিন্তু ৩২ নম্বর খুঁটিটি পুরোপুরি সম্পূর্ণ না হওয়ার কারণে এটি ৩২ ও ৩৩ নম্বর খুঁটির কাছাকাছি কোনো অস্থায়ী খুঁটির উপর বসানো হবে।

পরে ৩২ নম্বর খুঁটি প্রস্তুত হলে এটি ৩২ ও ৩৩ নম্বর খুঁটির উপর স্থায়ী ভাবে বসানো হবে। এ লক্ষ্যে এখন প্রস্তুতি চলছে।

কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে জায়গা সংকুলান না হওয়ায় প্রস্তুত স্প্যানগুলো অস্থায়ী ভাবে খুঁটির উপর বসানো হচ্ছে বলে জানান সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলী। ইতিমধ্যে চীন থেকে আরও দুটি স্প্যান মাওয়ার পথে রওনা দিয়েছে। মাওয়া কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে স্প্যান দুটি পৌঁছতে আরও ১০-১৫ দিন সময় লাগবে। চীন থেকে এ পর্যন্ত ২১টি স্প্যান এসেছে। আরও দুটি স্প্যান পথে রয়েছে।

এর মধ্যে ১২টি স্প্যান বসানো হয়েছে। এখনও ৯টি স্প্যান মাওয়া কুমারভোগ কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে। পদ্মা সেতুতে স্প্যান বসবে ৪১টি । বাকি ১৮টি স্প্যানের অধিকাংশ চীন থেকে দেশে আসার প্রক্রিয়া চলছে।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue