রবিবার, ২১ জুলাই, ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৫ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার ০৭:০১ পিএম

পাসপোর্ট অফিসে দুদকের অভিযান

ঢাকা : খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) সকালে এ অভিযান চালায় দুদকের রাঙ্গামাটির সমন্বিত কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। খাগড়াছড়ি পাসপোর্ট অফিসের অনিয়ম, দুর্নীতি নিয়ে সম্প্রতি একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে প্রকাশিত সংবাদের জেরে এ অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন দুদকের রাঙ্গামাটি সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক নাছির উদ্দিন আহমেদ। অভিযানকালে ঘুষের বিনিময়ে ফরম পূরণ থেকে পাসপোর্ট তৈরি করে দেওয়ার বিষয়টির সত্যতা পান দুদক কর্মকর্তারা।

এ সময় আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট করতে আসা উপস্থিত সবাই কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দালাল চক্রকে ঘুষ দিয়ে পাসপোর্ট করতে হয় বলে অভিযোগ করেন দুদক কর্মকর্তাদের কাছে।

আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সুইপার সুরেশ ত্রিপুরার বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে পাসপোর্ট করে দেওয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে বদলি করার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

দুদকের রাঙ্গামাটি সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক নজরুল ইসলাম বলেন, ‘পাসপোর্ট অফিসের অনিয়ম দুর্নীতি নিয়ে বাংলানিউজে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। সেটির তদন্ত করতে এখানে আসা। ঘুষের বিনিময়ে পাসপোর্ট অফিসের কাজ করার সত্যতা পেয়েছি’।

দুদকের রাঙ্গামাটি সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক নাছির উদ্দিন আহমেদ বলেন, পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ একটি দালাল চক্র জড়িত। আমরা হাতে নাতে প্রমাণ পেয়েছি। অসহায় মানুষকে হয়রানি করার একাধিক অভিযোগ আছে।

মঙ্গলবার পাসপোর্ট করতে আসা ব্যক্তিরা টাকা দিয়ে পাসপোর্ট কারার বিষয়টি আমাদের জানিয়েছেন। এসব ঘটনার আরো তদন্ত করে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শওকত কামাল বাংলানিউজকে বলেন, লোক সংখ্যা কম হওয়ার কারণে এমনটা ঘটেছে। নিজেকে নির্দোষ দাবি করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানান তিনি।

গত ১৬ মার্চ ‘খাগড়াছড়ি পাসপোর্ট অফিসে টাকা দিলে হাঁটে ফাইল’ শিরোনামে বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। যেখানে পাসপোর্ট অফিসের অনিময় দুর্নীতির বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়। পুলিশি তদন্তের নামেও পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা টাকা নেন। এরই প্রেক্ষিতে অভিযুক্ত শিপন হোসেন নামে পাসপোর্ট অফিসের এক অফিস সহকারীকে বদলিও করা হয়।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue