বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

পাহাড়ি তরুণীকে তিনবন্ধু মিলে গণধর্ষণের রহস্য উদঘাটন

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৯:২৭ পিএম

পাহাড়ি তরুণীকে তিনবন্ধু মিলে গণধর্ষণের রহস্য উদঘাটন

ছবি সংগৃহীত

খাগড়াছড়ি: কু প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় গভীর রাতের ধনিতা ত্রিপুরাকে তিনবন্ধু মিলে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে ধর্ষণের পর পাহাড়ি তরুণীকে হত্যা করে। খাগড়াছড়ির সদর উপজেলার দুর্গম বড়পাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। অবশেষে গণধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ।

ইতোমধ্যে হত্যাকাণ্ডের সাথে সম্পৃক্তা স্বীকার করেছে আসামিরা। ধর্ষণের পর তিনবন্ধু মিলে ধনিতাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। বুধবার বিকালে খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়া বেগমের আদালতে ১৬৪ ধারা আসামিরা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

খাগড়াছড়ি সদর থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন টিটো জানান, গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আটককৃত কমল ত্রিপুরা, রনেল ত্রিপুরা ও ত্রিরণ ত্রিপুরাকে আটক করে। বুধবার আসামিদের আদালতে হাজির করা হয়। এসময় আসামিরা আদালতে স্বাকীরোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিয়ের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় সোমবার গভীর রাতের ধনিতা ত্রিপুরাকে গণধর্ষণের পর হত্যা করেছে তিনবন্ধু। খাগড়াছড়ির সদর উপজেলার দুর্গম বড়পাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নিহত তরুণীর লাশ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় তিনজনকে আটক করে পুলিশ। এই ঘটনায় ভিকটিমের মা সরলেখা ত্রিপুরা বাদী হয়ে খাগড়াছড়ি সদর থানায় ধর্ষণ ও হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue