সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২ পৌষ ১৪২৬

প্যারলে চিকিৎসা নিতে নওয়াজের অস্বীকৃতি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৩ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার ০৯:৩১ পিএম

প্যারলে চিকিৎসা নিতে নওয়াজের অস্বীকৃতি

ঢাকা : চিকিৎ‌সা করাতে প্যারলে বিদেশে যেতে পারবেন পাকিস্তান মুসলিম লিগ (এন)-র ‘সুপ্রিমো’ ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ।  মঙ্গলবার পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে। কিন্তু বিদেশ যেতে হলে নওয়াজকে একটি বন্ড সই করতে হবে।  তবে পাকিস্তানি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নওয়াজ সরকারের শর্ত সাপেক্ষের ওই বন্ড সই করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

ওই বন্ড অনুযায়ী, বিদেশ যেতে হলে ৭০০ কোটি রুপি জামানাত দিতে হবে তাকে।  পাশাপাশি চিকিৎসা করিয়ে নওয়াজ পাকিস্তানে ফিরবেন এবং তার বিরুদ্ধে থাকা মামলার মুখোমুখি হবেন বলেও উল্লেখ রয়েছে সেখানে।

মঙ্গলবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের উপস্থিতিতে এই বৈঠক হয়। সেখানেই সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয় নো-ফ্লাই লিস্ট থেকে নওয়াজ শরিফের নাম সরিয়ে ফেলা হবে। বৈঠক শেষে রেলমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ ইমরান সরকারের এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। ফলে নওয়াজের বিদেশ যাত্রার ক্ষেত্রে আর কোনও বাধাই রইলো না।

পাকিস্তান মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর স্পেশ্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট অন ইনফরমেশন ফিরদৌস আওয়ান জানান, নওয়াজ শরিফের বিষয়টি মানবিকতার খাতিরে বিবেচনা করা হয়েছে। মন্ত্রিসভার সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যই নওয়াজ যাতে পাকিস্তানের বাইরে গিয়ে চিকিৎ‌‌সা করাতে পারেন, সে বিষয়ে সম্মতি জানিয়েছেন।

রক্তের এক জটিল অসুখে ভুগছেন পাকিস্তানের সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। মেডিক্যালের পরিভাষায় যাকে বলা হচ্ছে, ব্লিডিং ডিজঅর্ডার। এই অসুখের কারণে অস্বাভাবিক হারে প্লেটলেট কাউন্ট কমে যাচ্ছে। লাহোরের সার্ভিসেস হাসপাতালের চিকিৎ‌সকেরা দুই সপ্তাহ ধরে চেষ্টা করেও নওয়াজ শরিফকে পুরোপুরি সুস্থ করে তুলতে পারেননি। প্লেটলেট কাউন্ট স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে না। চিকিৎ‌সার কারণেই দুর্নীতির মামলায় লাহোর ও ইসলামাবাদ হাইকোর্ট তাকে শর্তসাপেক্ষে জামিন দিয়েছেন।

সোনালীনিউজ/এএস