মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫

প্রতিবেশীর মৃত্যু দেখতে গিয়ে দেখতে হলো ছেলের লাশ!

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, রবিবার ০৮:২১ পিএম

প্রতিবেশীর মৃত্যু দেখতে গিয়ে দেখতে হলো ছেলের লাশ!

ছবি : সোনালীনিউজ

বাগেরহাট : জেলার শরণখোলায় মায়ের কাছে টাকা চেয়ে না পেয়ে এক স্কুলছাত্র গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের দক্ষিণ বাধাল গ্রামের বাসিন্দা দিনমজুর মো. ওবায়দুল হাওলারের পরিবারে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য ও হাসপাতাল সূত্র জানায়, একইদিন দুপুরে ওবায়দুলের ছেলে ও বাধাল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র মো. কবির হাওলাদার (১১) তার মা নাছিমা বেগম (২৮) এর কাছে স্কুল হতে উপবৃত্তি মারফত পাওয়া ৩০০ টাকা দাবি করেন। উক্ত টাকা না দিয়ে তার মা তাদের এক প্রতিবেশীর মৃত্যুর খবর পেয়ে কবিরকে বাসায় রেখে চলে যায়। পরে কবির মায়ের ওপর অভিমান করে নিজ ঘরের ফ্যানের সঙ্গে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। বিকেল ৫টার দিকে প্রতিবেশীরা কবিরকে খুঁজতে গেলে ঝুলন্ত অবস্থায় তাকে দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন। ওই সময় স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন এবং কবিরকে উদ্ধার করে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে কবিরের মা হাসপাতালে ছুটে আসেন। এ সময় ছেলের নিথর দেহ দেখে বারবার মুর্ছা যাচ্ছিলেন তিনি।

শরণখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দিলীপ কুমার সরকার নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে এবং ময়না তদন্তের জন্য লাশ বাগেরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। এ ছাড়া ঘটনাটির খোঁজ-খবর নিয়ে দেখা হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এইচএআর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue