মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭

প্রাথমিক বিদ্যালয় ৪০ দিন খোলা রাখার পরিকল্পনা 

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, বুধবার ১২:৫৬ পিএম

প্রাথমিক বিদ্যালয় ৪০ দিন খোলা রাখার পরিকল্পনা 

ঢাকা: করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর আবার বিদ্যালয় খুলতে হবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। তাই নির্দিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনের মাধ্যমে ৪০ দিন বিদ্যালয় পুনরায় চালুর নির্দেশিকা প্রণয়ন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আকরাম হোসেন।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এই নির্দেশিকা স্কুল পর্যায়ে পৌঁছে দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে ‘আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস- ২০২০’ উদযাপন উপলক্ষে রাজধানীর উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো সম্মেলন কক্ষে মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো: জাকির হোসেন বলেছেন, করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ ৫ মাস হলো সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। শিক্ষার্থীরা অনিশ্চিত অবস্থায় গৃহবন্দী হয়ে ক্লাসে যাওয়ার জন্য মুখিয়ে আছে।

আরও পড়ুন : প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জন্য বড় সুখবর

গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমানে দেশে সাক্ষরতার হার শতকরা ৭৪ দশমিক ৭ ভাগে উন্নীত হয়েছে যা ২০০৫ সালে তৎকালীন বিএনপি-জামাত জোট সরকারের সময় ছিল মাত্র ৫৩ দশমিক ৫ ভাগ।

তিনি বলেন, স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রাথমিক শিক্ষাকে যুগোপযোগী করার লক্ষ্যে ১৯৭৩ সালে ৩৬ হাজার ১৬৫টি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ এবং ১ লাখ ৫৭ হাজার ৭২৪ জন শিক্ষককে সরকারিকরণের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার অগ্রগতির সোপান রচনা করেন। তারই ধারাবাহিকতায় প্রাথমিক শিক্ষাকে আরও গতিশীল করার লক্ষ্যে ২০১৩ সালে তাঁরই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করেন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো: আকরাম-আল-হোসেনের সভাপতিত্বে আর্ন্তজাতিক সাক্ষরতা দিবসের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অনান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মহাপরিচালক তপন কুমার ঘোষসহ বিভিন্ন সহযোগী দাতা সংস্থা ও বেসরকারি সংস্থার প্রতিনিধিবৃন্দ।

নির্দেশনায় বলা হয়, কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে জনস্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিদ্যালয় পুনরায় চালুর নির্দেশিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। বিদ্যালয় পুনরায় চালুর আগে অনুমোদিত নির্দেশিকার আলোকে প্রস্তুতি গ্রহণ করা প্রয়োজন। এমতাবস্থায়, ‘কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে জনস্বাস্থ্য ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৪০ দিন বিদ্যালয় পুনরায় চালুর নির্দেশিকা’ স্কুল পর্যায়ে প্রেরণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

একইসঙ্গে প্রস্তুতি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে নেওয়া পদক্ষেপগুলোর ওপর সংশ্লিষ্ট পোস্টার, লিফলেট ইত্যাদির খসড়াসহ একটি উপস্থাপনা দেওয়ার জন্যও অনুরোধ করা হয় নির্দেশনায়।

তবে কবে থেকে এই নির্দেশা কার্যকর হবে সেটা এই সপ্তাহে নির্ধারণ করা হবে। সেখানেই ক্ষেত্রে ক্লাস ৮ পর্যন্ত ক্লাস খুলবে। 
যদি তা না হয়ে সেক্ষেত্রে অটোপাসের কথা চিন্তা করবে শিক্ষামন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দেশে করোনা রোগী শনাক্তের পর গত ১৭ মার্চ থেকে দফায় দফায় ছুটি বাড়িয়ে দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত। ছুটির পর পরিস্থিতি অনুকূলে আসলে বিদ্যালয় খুলে দেওয়া হবে। তবে কবে নাগাদ খোলা যাবে তা নির্ভর করছে স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের ওপর।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue