রবিবার, ২৬ জানুয়ারি, ২০২০, ১২ মাঘ ১৪২৬

প্রাথমিক শিক্ষিকার মামলায় শিক্ষা ভবনের কর্মকর্তা বরখাস্ত

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৪:১৯ পিএম

প্রাথমিক শিক্ষিকার মামলায় শিক্ষা ভবনের কর্মকর্তা বরখাস্ত

টাঙ্গাইল: সাবেক দ্বিতীয় স্ত্রীর যৌতুক মামলায় বরখাস্ত হয়েছেন শিক্ষা অধিদপ্তরাধীন স্কুল প্রকল্পের কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক। ৩৪তম বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারের হিসাববিজ্ঞান বিষয়ের এ প্রভাষক ‘ঢাকার নিকটবর্তী এলাকায় ১০টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় স্থাপন প্রকল্প’র গবেষণা কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

টাঙ্গাইল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাঁর সাবেক দ্বিতীয় স্ত্রীর করা মামলাটির চার্জ গঠন ও বিচার শুরু হওয়ায় প্রভাষক আবদুর রাজ্জাককে বরখাস্ত করা হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

জানা গেছে, পাবনায় ছাত্র থাকাকালীন করা প্রথম বিয়েটি ভেঙ্গে যায়। পরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষককে বিয়ে করেন। যৌতুক চাওয়ায় তার সাথেও বিচ্ছেদ হয়।

পরে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ‘যৌতুকের মামলা’ দায়ের করেন প্রাথমিক শিক্ষকা সাবেক স্ত্রী। মামলাটির চার্জ গঠন হয়েছে। ইতোমধ্যে তার বিচারও শুরু হয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ও তা বিচার শুরু হওয়ায় বিএসআরের (পার্ট-৩) বিধি ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা মোতাবেক তাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে তাকে ভূতাপেক্ষ সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

গত ২৪ নভেম্বর আদেশ জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ। সাময়িক বরখাস্তকালীন সময়ে শিক্ষা ক্যাডার কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক খোরপোষ ভাতা পাবেন।৩ ৪তম বিসিএসের এই কর্মকর্তার চাকরি এখনও স্থায়ী হয়নি।

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue