রবিবার, ১৯ মে, ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

প্রেমিকার মধ্যে যৌন ও রোমান্টিক চিন্তা আনবে ‘কিসপেপটিন’ ইনজেকশন

লাইফস্টাইল ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০১৯, মঙ্গলবার ১১:২৫ এএম

প্রেমিকার মধ্যে যৌন ও রোমান্টিক চিন্তা আনবে ‘কিসপেপটিন’ ইনজেকশন

ঢাকা: যৌনতার ক্ষেত্রে মনস্তাত্ত্বিক সমস্যা দূর করার ক্ষেত্রে একটি হরমোন ইনজেকশন সে সমস্যা দূর করবে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। ‘কিসপেপটিন’ নামে এই হরমোনটিই বয়ঃসন্ধিকালের সূচনা করে থাকে। এই হরমোনটিই আমদের মনে যৌন ও রোমান্টিক চিন্তা ভাবনা নিয়ে আসে। তাই এই হরমোন ইনজেকশন করলে মানুষের প্রজনন স্বাস্থ্য ভালো হয়ে যাবে বলে মত গবেষকদের।

ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডনের একটি গবেষকদল ২৯ জন স্বাস্থ্যবান পুরুষকে কিসপেপটিন হরমোন ইনজেকশন এর মাধ্যমে দেন। মস্তিষ্কে কী প্রভাব পড়ে সেটা দেখতে গিয়ে এটা মস্তিষ্কের যে অংশটা যৌন ও রোমান্টিক বিষয়াদি নিয়ন্ত্রণ করে সে অংশে কর্মকাণ্ড বেড়ে যায়। ম্যাগনেটিক রিসোনেন্স ইমেজিং বা এমআরআই করে মস্তিষ্কের সে অংশে দেখা যায় যৌনতায় ও রোমান্টিক বিষয়ে ভালো সাড়া দিচ্ছে।

গবেষকদলের প্রধান ওয়ালজিত দিলো বলেন, গবেষণায় প্রাপ্ত ফলাফল থেকে তারা এটা উপলব্ধি করছেন যে মানসিক কারণে যাদের যৌনতায় সমস্যা হচ্ছে বা বন্ধ্যাত্বে আক্রান্ত হচ্ছেন তাদের চিকিৎসায় এটা খুব কাজে দেবে। যৌনতার ক্ষেত্রে মস্তিষ্ক অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আমাদের রোমান্টিক ইমোশন জাগাতে কিসপেপটিন গুরুত্বপূর্ণ প্রভাবক হিসেবে ভূমিকা রাখতে পারে।

গবেষকদলটির গবেষণার ফল প্রকাশিত হয় জার্নাল অব ক্লিনিকাল ইনভেস্টিগেশনে। নারী ও পুরুষ উভয়ের জন্যই উপকার দেবে এই হরমোন।

এই হরমোনটি আমাদের মধ্যে নেতিবাচকতা দূর করতেও সাহায্য করে। এ জন্য যারা ডিপ্রেশনে ভুগছেন তাদের চিকিৎসায় খুব কাজে দেবে।

সোনালীনউজ/ঢাকা/এসআই