সোমবার, ২০ মে, ২০১৯, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ফসলি জমি নষ্ট করে ক্যানেল খনন, কৃষকের মাথায় হাত

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৭ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০৫:৫৮ পিএম

ফসলি জমি নষ্ট করে ক্যানেল খনন, কৃষকের মাথায় হাত

ছবি : সোনালীনিউজ

দিনাজপুর : জেলার ফুলবাড়ীতে তিন ফসলি আবাদি জমিতে পানি নিষ্কাশনের ক্যানেল খনন করায়, মাথায় হাত পড়েছে ওই এলাকার কৃষকের। প্রতিকার চেয়ে কর্তা ব্যক্তিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে জমি মালিকেরা। ঘটনাটি ঘটেছে ফুলবাড়ী উপজেলার খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের মহদিপুর, মহেষপুর এলাকায়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে মহদিপুর, মহেষপুর, অম্রবাড়ী ও লালপুর গ্রামের কৃষকেরা।

ভুক্তভোগী কৃষকরা বলেন, পানি নিষ্কাশনের শেষাংশ (ভাটি এলাকা) দৌলতপুর ইউনিয়নের বারাইপাড়া, গড়পিংলাই মৌজায় পানি নিষ্কাশনের রাস্তা বন্ধ করে পুকুর খনন ও বাঁধ নির্মাণ করায় বর্ষাকালের পানি নিষ্কাশনে বাধা সৃষ্টি করেছে। এই কারণে প্রতি বছর বর্ষাকালে পানিতে ডুবে যাচ্ছে খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের উত্তর লক্ষিপুর, মহদিপুর, মহেষপুর এলাকার ফসল ও বাড়িঘর। অথচ পানি নিষ্কাশনের বাধা হয়ে যাওয়া গড়পিংলাই ও বারাইপাড়া এলাকার বাঁধ ও পুকুর অপসারণ না করে, নারায়পুর, লালপুর ও মহেষপুর এলাকায় তিন ফসলি জমির ওপর পানি নিষ্কাশনের ক্যানেল খনন করছে পানি উন্নায়ন বোর্ড। কৃষকরা বলছেন, পানি উন্নায়ন বোর্ডের ক্যানেল খননের কারণে তাদের মালিকানা তিন ফসলি জমি ক্যানেলের গর্ভে চলে যাচ্ছে, অথচ পানি উন্নায়ন বোর্ড তাদের জমির মূল্য বা ক্ষতিপূরণ কিছুই দিচ্ছে না, এতে করে ফসলি জমি হারিয়ে তাদের মাথায় হাত পড়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, এই ক্যানেল খননের কারনে তার এক বিঘা জমি ক্যানেল গর্ভে চলে যাবে, অথচ পানি উন্নায়ন বোর্ড কোনো প্রকার ক্ষতিপূরণ তাকে প্রদান করেনি। একই কথা বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক প্রফুল্য চন্দ্র সরকার, রবিউল ইসলামসহ অনেকে।

কৃষক মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, তারা তাদের ক্ষতিপূরণের দাবিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট এবং গত ৪ মার্চ পানি উন্নায়ন বোর্ড বরাবর পৃথক দুটি লিখিত আবেদন করেও, এখন পর্যন্ত কোনো প্রকার প্রতিকার পাননি তারা। এজন্য তারা এখন তাদের জমির ক্ষতিপূরণের দাবিতে আন্দোলনে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

এই বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুস সালাম চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, প্রকল্পটি যেহেতু পানি উন্নায় বোডের এই কারণে তারায় বিষয়টি দেখভাল করবেন, তিনি বলেন কৃষকদের দেয়া আবেদন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যেমে পানি উন্নায় বোডে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সহকারী প্রকৌশলী বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এইচএআর