শনিবার, ০৬ জুন, ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ফেসবুকে স্ট্যাটাস, চাল-ডাল নিয়ে হাজির ওসি

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার ০৫:০৮ পিএম

ফেসবুকে স্ট্যাটাস, চাল-ডাল নিয়ে হাজির ওসি

ঢাকা: ছোট তিন সন্তান নিয়ে অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন রাজধানীর যাত্রাবাড়ি থানাধীন সুতিরখাল পাড় এলাকার এক নারী। করোনাভাইরাসের কারণে ১০ দিনের ছুটিতে রয়েছে দেশ। আর এ অবস্থায় তিনি আরো বেশি অসহায় হয়ে পড়েছেন।

স্বামী হারা এই নারী সন্তানদের খাবার সংগ্রহ করতে পারছিলেন না। অগত্যা তিনি সহযোগিতা নেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের। সন্তানদের নিয়ে না খেয়ে থাকার অবেগঘন স্ট্যাটাস দেন ফেসবুকে।

সেই স্ট্যাটাস দেখে যাত্রাবাড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজাহারুল ইসলাম ছুটে যান। তিনি সেখানে গিয়ে নিজেই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

পুলিশ সূত্র জানায়, ওই নারী যাত্রাবাড়ি এলাকার একটি ছাগলের আড়তে কাজ করে কিছু টাকা পেতেন। তাই দিয়ে চলতো তার সংসার। ছুটির কারণে ছাগলের আড়ত বন্ধ। এ কারণে তিনি বেকার হয়ে পড়েন। এর মধ্যেই ঘরের খাবারও শেষ হয়ে যায়। উপায়ন্তর না দেখে তিনি ফেসবুকের আশ্রয় নেন।

বুধবার (১ এপ্রিল) দুপুর ওসি মাযহার বলেন, ‘যতোদিন এ অবস্থা থাকবে ততোদিন আমি এ পরিবারের খাবার দাবারের দায়িত্ব  নিয়েছি।’ 

গত ৩১ মার্চ যাত্রাবাড়ীর সুতিরখালপাড়ের এই ভদ্র মহিলা ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী বরাবর সাহায্যের আবেদন করে লেখেন, ‘আমার স্বামী নেই, তিনটি ছোট ছোট সন্তান নিয়ে না খেয়ে আছি।’ যা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ৩১ মার্চ রাত ২টায় এই বিষয়টি যাত্রাবাড়ি থানার ওসি মাজাহারুল ইসলামের নজরে আসে।

তিনি আজ বুধবার সকালে ব্যক্তিগত উদ্যোগে ১০ কেজি চাল ৫ কেজি আলু ১ কেজি ডাল ও ১ লিটার তেল নিয়ে ওই বাসায় যান। সেখানে গিয়ে তিনি দেখতে পান ছোট একটি রুমে তিন সন্তান নিয়ে থাকেন ভদ্র মহিলা। 

ওসিকে ওই মহিলা জানান, ছোট ছেলেটি গর্ভে থাকতেই তাদের বাবা তিন বছর আগে মারা যান। এরপর থেকে অনেক কষ্টে এই তিন ছেলেকে নিয়ে এখানে বসবাস করছেন। 

আলাপকালে ভদ্র মহিলা ওসিকে জানান, আমি কল্পনাও করিনি ওসি নিজেই আমার বাসায় চাল, ডাল নিয়ে আসবে, তাও এতো দ্রুত সময়ে। আমি তা ভাবতে পারিনি।

সোনালীনিউজ/এইচএন

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue