রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ১ পৌষ ১৪২৬

বডি বিল্ডিং নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন সোয়াদ

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার ০৮:২৬ পিএম

বডি বিল্ডিং নিয়ে স্বপ্ন দেখছেন সোয়াদ

ঢাকা: খন্দকার তাইহান তাবাছসির সোয়াদ। বাবা খন্দকার লুৎফর রহমানের অনুপ্রেরণায় হয়েছেন বডিবিল্ডার। শুরু থেকেই সোয়াদকে গড়ে তুলেছেন আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশের প্রথম এবং একমাত্র সোনাজয়ী বডিবিল্ডার হাসিব হলি। এবার পরীক্ষার পালা। প্রথমবারের মতো কোন প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে যাচ্ছেন নারায়ণগঞ্জের তরুণ এই বডিবিল্ডার।

আগামী ২৬ নভেম্বর সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিতব্য ‘নাব্বা ডব্লিউএফএফ এশিয়া প্যাসিফিক চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৭’ -এ অনূর্ধ্ব-২৪ জুনিয়র বডিবিল্ডার ক্যাটাগরিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ১৮ বছরের সোয়াদ। অনূর্ধ্ব-১৮ ক্যাটাগরিতে অংশ নেয়ার কথা থাকলেও আয়োজকরা এই ক্যাটাগরি বাদ দিয়েছে। তাই কিছুটা বাধ্য হয়েই অনূর্ধ্ব-২৪ ক্যাটাগরিতে অংশ নিচ্ছেন তিনি।

প্রতিয়োগিতায় অংশ নেয়ার জন্য গত এক বছর ধরে সাবেক মিঃ বাংলাদেশ হাসিব হলির কাছে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন তাইহান সোয়াদ। তবে আশ্চর্যের বিষয় হলো জীবনে কখনও কোন প্রতিয়োগিতায় অংশ নেননি তিনি। কোনো প্রতিয়োগিতায় অংশ না নিয়েই ‘নাব্বা ডব্লিউএফএফ এশিয়া প্যাসিফিক চ্যাম্পিয়নশিপে’ অংশ নিতে যাচ্ছেন সোয়াদ। মানে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে তার। এ জন্য অবশ্য খানিকটা নার্ভাস ফিল করছেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সোনালীনিউজকে তাইহান সোয়াদ বলেন, একটু নার্ভাস তো লাগছেই। তবে অনেক দিন ধরে প্রস্তুতি নিয়েছি তাই চ্যালেঞ্জটা নিলাম। আমি দেশের জন্য কিছু করতে চাই। বাংলাদেশের বডিবিল্ডারও পারে আমি সেটা করে দেখাতে চাই। বিদেশের মাটিতে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে যাচ্ছি।

এর আগের প্রতিয়োগিতাগুলোতে জুনিয়রদের জন্য অনূর্ধ্ব-১৯ ও ২৪, এই দুইটি ক্যাটাগরি ছিল। কিন্তু এবার মাত্র একটি (অনূর্ধ্ব-২৪) রাখা হয়েছে। সোয়াদ প্রস্তুতি নিয়েছেন অনূর্ধ্ব-১৯ ক্যাটাগরিকে সামনে রেখে। এ বিষয়ে ১৮ বছর বয়সী এই বডিবিল্ডার বলেন, আমি প্রস্তুতি নিয়েছিলাম অনূর্ধ্ব-১৯ ক্যাটাগরির জন্য। কিন্তু দুর্ভাগ্যবসত সেটি এবার নেই। তাই অনূর্ধ্ব-২৪ জুনিয়র বডিবিল্ডার ক্যাটাগরিতে লড়তে হচ্ছে।

প্রতিযোগিতায় নিজের লক্ষ সম্পর্কে জানতে চাইলে তাইহান সোয়াদ বলেন, যেহেতু প্রস্তুতি অনুযায়ী অনূর্ধ্ব-১৯ ক্যাটাগরিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারছি না। তাই এখন আমার টার্গেট সেরা পাঁচের মধ্যে থাকা। এর চেয়ে ভাল ফলাফল করতে পারলে সেটা আমার সৌভাগ্য।

ট্রেইনার হাসিব হলি সম্পর্কে তিনি বলেন, তার প্রেরণায় আমার বলিবিল্ডার হওয়া। শুরু থেকেই হাসিব ভাই আমাকে সব ধরনের সহযোগিতা করে আসছেন। তিনি না থাকলে হয়তো এ দিকে আমার দৃষ্টি দেয়া হতো না। আমার ট্রেইনার হলেও তিনি আমাকে ছোট ভাইয়ের মতো স্নেহ করেন। একেবারে হাতে ধরে ধরে আমাকে সব শিখিয়েছেন। এই যে  ‘নাব্বা ডব্লিউএফএফ এশিয়া প্যাসিফিক চ্যাম্পিয়নশিপ’ এ অংশ নিতে যাচ্ছি সেটাও হাসিব ভাইয়ার অবদান।

তাইহান সোয়াদ জানান, নিজের খরচে সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন তিনি। এজন্য বাবা খন্দকার লুৎফর রহমান তাকে সব দিক থেকে সহযোগিতা করেছেন। নাব্বা ডব্লিউএফএফ বাংলাদেশ থেকে পাঠানো হচ্ছে সোয়াদকে।

এদিকে, বাংলাদেশ বডিবিল্ডিং ফেডারেশন থেকে তাইহান সোয়াদ ‘নাব্বা ডব্লিউএফএফ এশিয়া প্যাসিফিক চ্যাম্পিয়নশিপ’ এ অংশ নিতে নিষেধ করা হয়েছে। এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিলে বহিষ্কারেরও হুমকি দেয়া হয়েছে বলে জানান সোয়াদের ট্রেইনার হাসিব হলি। এ বিষয়ে জানতে বাংলাদেশ বডিবিল্ডিং ফেডারেশনের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue