মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬

বন্ধু অরুণ জেটলিকে হারিয়ে তাৎক্ষণিক যা বললেন মোদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার ০২:৫৫ পিএম

বন্ধু অরুণ জেটলিকে হারিয়ে তাৎক্ষণিক যা বললেন মোদি

ঢাকা: গত শুক্রবার (৯ অগাস্ট) শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে দিল্লির এইমস হাসপাতালে ভর্তি হন অরুণ জেটলি। শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত মঙ্গলবার থেকে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিলো। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শনিবার মারা যান। দীর্ঘদিন ধরেই নানা শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন ভারতের এই সাবেক অর্থমন্ত্রী। যে কারণে এ বছর লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদি দ্বিতীয় বার ক্ষমতায় আসার পরও মন্ত্রী হতে রাজি হননি জেটলি। ফলে তাকে ছাড়াই মন্ত্রিসভা গঠন করেন মোদি। 

তবে, সক্রিয় রাজনীতি থেকে সরে গেলেও, সোশ্যাল মিডিয়ায় বরাবরই সক্রিয় ছিলেন অরুণ জেটলি। মোদি সরকারের বিভিন্ন সিদ্ধান্তের পক্ষে সামাজিক মাধ্যমে মতামত রাখতে ভুলতেন না। কাশ্মীরের ওপর থেকে বিশেষ মর্যাদা তুলে নেয়ার পর মোদি সরকারের প্রশংসা করে সর্বশেষ স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন অরুণ জেটলি।

এদিকে, তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি থেকে শুরু করে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পর্যন্ত। এর আগে গত ৬ আগস্ট প্রয়াত হন ভারতের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। পরপর দুই প্রবীণ নেতাকে হারিয়ে স্বভাবতই শোকে কাতর গোটা ভারত।

সাবেক অর্থমন্ত্রীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি-ও। জেটলিকে দীর্ঘদিনের বন্ধু উল্লেখ করে মোদি বলেন, ‘অরুণ জেটলিজির প্রয়াণে একজন বন্ধুকে হারালাম আমি। তার মতো দূরদর্শিতা এবং উপলব্ধি খুব কম লোকেরই আছে। তার সঙ্গে আমার অনেক সুখস্মৃতি আছে। আমরা তার অভাব অনুভব করব।’

অরুণ জেটলির প্রয়াণে শোকপ্রকাশ করে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ টুইটার বার্তা দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘অরুণ জেটলির প্রয়াণে শোকাহত আমি। তিনি দীর্ঘদিন অসুস্থতার সঙ্গে লড়াই করছিলেন। তিনি ছিলেন একজন বুদ্ধিদীপ্ত আইনজীবী এবং অভিজ্ঞ সাংসদ। দেশে গঠনে তার উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রয়েছে।’

শ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লিখেছেন, ‘অরুণ জেটলিজির প্রয়াণে মর্মাহত আমি। অত্যন্ত সাহসিকতার সঙ্গে লড়াই করেছেন তিনি। একজন অসাধারণ সাংসদ এবং বুদ্ধিদীপ্ত আইনজীবী ছিলেন। সব রাজনৈতিক দল তাকে শ্রদ্ধা করত। ভারতীয় রাজনীতিতে উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য তিনি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন। তার স্ত্রী, সন্তান, বন্ধু এবং সমর্থকদের জানাই সমবেদনা।’

এ ছাড়া ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি দলের সভাপতি অমিত শাহ বলেন,‘অরুণ জেটলির প্রয়াণে আমি শোকাহত। আমি কেবল দলের একজন শীর্ষ নেতাকেই হারাইনি, পরিবারের এক সদস্যকে হারিয়েছি। আমার কাছে তিনি চিরকাল একজন পথপ্রদর্শক হয়েই থাকবেন।’

সোনালীনিউ্জ/এমএএইচ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue