শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

বাবরি মসজিদ ৫০০ বছরের পুরনো, বিরোধ শত বছরের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার ০১:০৫ পিএম

বাবরি মসজিদ ৫০০ বছরের পুরনো, বিরোধ শত বছরের

ঢাকা : ভারতের অযোধ্যায় অবস্থিত বাবরি মসজিদ মামলার রায় দেয়া হয়েছে। রায়ে বিতর্কিত জমি দেয়া হয়েছে হিন্দুদের। আর মসজিদের জন্য অযোধ্যায়ে বিকল্প জমি বরাদ্দ দেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।  

 

বাবরি মসজিদের প্রতিষ্ঠানকাল থেকে সর্বশেষ ঘটনাপ্রবাহ সংক্ষেপে তুলে ধরা হলো-

১৫২৮ সালে বাবরি মসজিদ নির্মাণ করেন মোঘল সম্রাট বাবরের সেনাপতি মীর বাকি। অনেক হিন্দু গোষ্ঠির দাবি, জায়গাটিতে আগে মন্দির ছিলো।

১৮৮৫ সালে মসজিদের জায়গায় মন্দির নির্মাণের অনুমতি চেয়ে মামলা করেন এক মহন্ত। খারিজ করে দেয় আদালত।

১৯৪৯ সালের ২২ ডিসেম্বর রাতে মসজিদের ভেতর রাম ও সীতার প্রতিমা রেখে আসে অজ্ঞাত কেউ। অলৌকিক দাবি করে প্রার্থনা শুরু করেন হিন্দুরা।

১৯৫০ সালে আদালতের নির্দেশে মসজিদে তালা দেয়া হয়। বন্ধ হয় মুর্তি দর্শনও।

১৯৫৯ সালে জমির মালিকানা চেয়ে মামলা করে একটি হিন্দুবাদী গোষ্ঠি।

১৯৬১ সালে জমির মালিকানা চেয়ে পাল্টা মামলা করে মুসলিম একটি গোষ্ঠি।

১৯৮০-র দশকে রামজন্মভূমি আন্দোলন করে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।

১৯৮৬ সালে মসজিদের তালা খোলার নির্দেশ দেয় আদালত।

১৯৯০ সালে রাম মন্দিরের দাবিতে রথযাত্রা করেন লালকৃষ্ণ আদভানি।

১৯৯২ সালের ৬ ডিসেম্বর মসজিদ গুড়িয়ে দেয় উগ্রবাদীরা। দাঙ্গায় প্রাণ যায় তিন হাজারের বেশি মানুষের।

২০১০ সালে অযোধ্যার জমি রামলালা, সুন্নি ওয়াকফ বোর্ড ও নির্মোহী আখড়ার মধ্যে তিন ভাগে ভাগ করে দেয় এলাহাবাদ হাইকোর্ট।

সোনালীনিউজ/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue