শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯, ১ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

বিএনপির ‘প্রার্থী’ উত্তরে তাবিথ দক্ষিণে ইশরাক

বিশেষ প্রতিনিধি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার ০১:০০ পিএম

বিএনপির ‘প্রার্থী’ উত্তরে তাবিথ দক্ষিণে ইশরাক

ঢাকা : ঢাকার আসন্ন দুই সিটি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত আগে থেকেই নিয়ে রেখেছে বিএনপি।

‘অদম্য ঢাকা’ স্লোগান নিয়ে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে অংশ নিতে চায় দলটি। দুই সিটির মেয়র পদে উত্তর সিটিতে আগের প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণ সিটিতে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেন খোকাকে প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। নির্দেশনা অনুযায়ী তরুণ দুই নেতা নিজেদের মতো করে কাজ শুরু করেছেন।

রোববার (৩ নভেম্বর) নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব আলমগীর হোসেন আগামী জানুয়ারিতে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠানের কথা জানানোর পরেই রাজনৈতিক মহলে এই নির্বাচন নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

নির্বাচনে বিএনপির অবস্থান কী হবে জানতে দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, এই নির্বাচনের অংশগ্রহণের বিষয়ে বিএনপির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত। প্রস্তুতির জন্য সেভাবে কাজ করতে সংশ্লিষ্ট নেতাদের নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।

দলীয় সূত্রমতে, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব অনেক আগে থেকেই ইতিবাচক। সে হিসেবে ঢাকার দুই সিটিতে ভোট করার বিষয়ে কয়েক মাস আগে নির্বাচন কমিশনের আভাস দেওয়ার পর থেকেই কাজ শুরু করে বিএনপি।

জাতীয় নির্বাচনের মতো সিটি নির্বাচনে যাতে কারচুপি না করতে পারে সে ব্যাপারে কঠোর প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দলটি। আগে থেকেই সম্ভাব্য প্রার্থীদের কাজ করতে বলা হয়েছে। দলের জন্য মাঠের আন্দোলনে গিয়ে মামলা মোকাদ্দমা না জড়িয়ে সিটি নির্বাচনের আগে সামাজিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে এলাকায় পরিচিতি বাড়ানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এবার সিটি নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিল পদে কারা প্রার্থী হতে পারেন এর একটি তালিকাও ঠিক করেছেন দলের হাইকমান্ড। এরই মধ্যে উত্তরে তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণে ইশরাক হোসেন খোকার নাম হাইকমান্ডের তালিকায় শীর্ষে আছেন।

মেয়র পদে সবুজ সংকেতের বিষয়ে তাবিথ আউয়াল বলেন, দল নির্বাচনে অংশ নিলে এবং মনোনয়ন দিলে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা রয়েছে। অতীতের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে নির্বাচনে ভালো ফল করার ব্যাপারেও আশাবাদী তাবিথ।

অন্যদিকে ইশরাক বর্তমানে অসুস্থ বাবা সাদেক হোসেন খোকার পাশে নিউইয়র্কে আছেন। তবে কয়েকদিন আগে আলাপকালে নির্বাচনের বিষয়ে নিজের আগ্রহের কথা জানান ইশরাক। দল যদি নির্বাচনে অংশ নেয় এবং এই পদের জন্য যোগ্য মনে করে, তাহলে দলের পক্ষে নির্বাচনে লড়তে চান বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

এরই মধ্যে কাউন্সিল পদে আগ্রহীরাও মেয়র পদে আলোচনায় থাকা দুই নেতার সঙ্গে যোগাযোগ করছেন। মেয়র পদের এই দুই নেতার পাশাপাশি আগ্রহী কাউন্সিলর প্রার্থীরা নির্বাচনের প্রস্তুতি এবং পরবর্তী কার্যক্রমের বিষয়েও হোমওয়ার্ক শুরু করেছেন।

২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল প্রথমবারের মতো ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনের দিন দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভোটকেন্দ্র দখল, জালভোট ও এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার প্রতিবাদে সিটি করপোরেশনের নির্বাচন বর্জন করে বিএনপি।
দক্ষিণের মেয়রপ্রার্থী মির্জা আব্বাস ও উত্তরের প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের পক্ষে স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

সোনালীনিউজ/এমটিআই