শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর, ২০১৯, ২২ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬

বিতর্কে কৃতি স্যানন

বিনোদন ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার ০৯:১৭ পিএম

বিতর্কে কৃতি স্যানন

ঢাকা : গ্ল্যামারকন্যা হয়ে বলিউডে জায়গা করে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী কৃতি স্যানন। আগামী ৬ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে বহুল আলোচিত ছবি ‘পানিপথ’। তবে এই ছবি নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। ছবির একটি সংলাপ নিয়ে এই বিতর্কের সৃষ্টি। ছবির ট্রেইলারে কৃতি স্যাননের সংলাপ নিয়ে আপত্তি তুলেছেন পেশওয়া বাজি রাওয়ের বংশধর। এই সংলাপকে তিনি তীব্র আপত্তিকর বলে দাবি জানিয়েছেন এবং তিনি পরিচালককে এ বিষয়ে নোটিশও দিয়েছেন। যদি নোটিশের জবাব না আসে তবে তিনি আদালতের দ্বারস্থ হবেন।

এমন পরিস্থিতিতে অনেকটাই হতাশ কৃতি। ছবি মুক্তির ঠিক আগমুহূর্তে এরকম বিতর্কে ছবি মুক্তি নিয়ে তৈরি হয়েছে নতুন সংশয়। ছবি মুক্তির আগে বিতর্ক থাকার কারণে ছবিটি দর্শকদের মনে গ্রহণযোগ্যতা কতটুকু হবে তা নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন কৃতি।

‘পানিপথ’ ছবিতে কৃতিকে দেখা যাবে অর্জুনের স্ত্রী পার্বতী বাইয়ের ভূমিকায়। ট্রেইলারে দেখা গেছে অর্জুন কাপুর যখন যুদ্ধে যাচ্ছেন, সে সময় কৃতি বলেন, ‘আমি শুনেছি পেশওয়া যখন একা যুদ্ধে যান তখন এক মস্তানিকে নিয়ে ফিরে আসেন।’ আর এই সংলাপেই তীব্র আপত্তি তোলেন পেশওয়ার অষ্টম প্রজন্মের বংশধর।

নবাবজাদা সহদেব আলি বাহাদুর বলেন, ‘নির্দিষ্ট একটি সংলাপ শুনতে খুব বাজে লাগছে এবং এটি খুবই আপত্তিকর। এটি যেভাবে ব্যবহূত হয়েছে, তা কেবল মস্তানি সাহিবারই নয়, পেশওয়ারের একটি খারাপ চিত্র উপস্থাপন করেছে, যা আমাদের শ্রোতাদের এবং মারাঠার ইতিহাস সম্পর্কে অজানা তরুণদের কাছে। মস্তানি বাই অন্য এক মহিলা ছিলেন না, পেশওয়া বাজি রাওয়ের একনিষ্ঠ স্ত্রী ছিলেন।’

তিনি বলেন, ‘সিনেমার ট্রেইলারটিতে সেই অংশটি দেখার পরে আমি সেই অংশটি সরিয়ে দিতে বা প্রয়োজনে পরিবর্তন করার জন্য প্রযোজক এবং পরিচালককে নোটিশ পাঠিয়েছি। তারা যদি সাড়া না দেয়, আমি তাদের বিরুদ্ধে আদালতে যাব।’

ধীরে ধীরে কৃতি স্যানন গ্ল্যামারের খোলস থেকে বেরিয়ে এসে ভিন্নধর্মী ছবিতে নিজেকে মেলে ধরার চেষ্টা করছেন। সে ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি তিনি একটি ব্যতিক্রমী ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। নতুন এ ছবিতে তাকে পর্দায় দেখা যাবে একেবারে ভিন্নরূপে। সম্প্রতি একটি ভারতীয় ম্যাগাজিনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনটিই জানালেন এ অভিনেত্রী। সেখানে তিনি বলেন, আমার পরবর্তী ছবির নাম ‘মিমি’। এ ছবিতে আমাকে সন্তানসম্ভবা একজন মায়ের চরিত্রে দেখা যাবে। নতুন ছবিতে এমন ধরনের চরিত্র নিয়ে কৃতী বলেন, ‘এ ধরনের চরিত্র সত্যি ভীষণ চ্যালেঞ্জিং। কারণ আমাকে কখনো এমন ধরনের পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়নি। তবে আমি ঘাবড়ে যাচ্ছি না। সন্তানসম্ভবা একজন নারীর বিভিন্ন প্রতিকূল পরিস্থিতি সম্পর্কে আমার মায়ের সঙ্গে অনেক আলোচনা করেছি। এ সময় একজন নারীর শারীরিক ও মানসিক কী কী পরিবর্তন আসে, এসব বিষয়ে মা আমাকে বিস্তারিত বলেছেন।’

এদিকে সিনেমার ‘আইটেম’ গানের পক্ষে মত দিয়েছেন কৃতি শ্যানন। তিনি মনে করেন, এ নিয়ে অস্বস্তির কিছু নেই। এমনকি একে তিনি আইটেম বলতেও নারাজ। দর্শকদের বিনোদন জোগাতে ছবিতে গান থাকতেই পারে। সেসব গানের থাকতে পারে রকমফের। এগুলোকে আইটেম বলার কারণে কৃতি জোর আপত্তি করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আইটেম আবার কী! এই গানকে কেন আইটেম নাম্বার বলতে হবে বুঝি না। শব্দটা ব্যবহার করে একে একটু নেতিবাচক করে তোলা হয়। এগুলো তো একেবারেই নাচনির্ভর পরিবেশনা। দর্শকের আনন্দ আরো একটু বাড়িয়ে দিতে এগুলো রাখা হয়। দর্শকরা এসব পছন্দও করেন। এসব গানের সঙ্গে যুক্ত যারা, তাদের নেতিবাচক চোখে দেখা হবে কেন? এই গানের শিল্পীদের সম্মান করা হবে না কেন?’

সোনালীনিউজ/এমটিআই