বুধবার, ১৭ জুলাই, ২০১৯, ১ শ্রাবণ ১৪২৬

বিপদসংকুল বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন

ফিচার ডেস্ক    | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৬ জুন ২০১৯, রবিবার ০২:৫৫ পিএম

বিপদসংকুল বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন

ঢাকা: বাংলাদেশের সুন্দরবনকে বিশ্বের সবচেয়ে বিপদসংকুল বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য কেন্দ্র। সুন্দরবন রক্ষায় যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, তাকে অপর্যাপ্ত মনে করে সংস্থাটি। গত সপ্তাহে সুন্দরবনকে বিপদসংকুল বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করে ইউনেস্কো।

সুন্দরবনের খুব কাছে বাগেরহাটের রামপাল কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্র ও অন্যান্য উন্নয়ন প্রকল্পের কারণে সেখানকার জীববৈচিত্র্য বিপন্ন হয়ে উঠেছে।

একই সঙ্গে ইউনেস্কো বাংলাদেশ সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছে যাতে তাদের সুন্দরবন রক্ষায় একটি সংশোধনমূলক পরিকল্পনা করতে ডাকা হয়। ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো সুন্দরবনকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা করেছিল। এখন ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্য কেন্দ্রই সুন্দরবনকে বিপন্ন ঘোষণা করেছে। যদিও বাংলাদেশ সরকার বরাবরই দাবি করে আসছে যে, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র সুন্দরবনের কোনো ক্ষতি করবে না। কিন্তু ইউনেস্কো কখনোই এমন আশ্বাসে সন্তুষ্ট হয়নি।

২০১৭ সালে ইউনেস্কোর ৪১তম সভায় অংশ নিয়ে এ ইস্যুতে আলোচনা করে।

ইউনেস্কোর দাবি, বাংলাদেশ সরকারের ভাষ্যমতে, সুন্দরবনকে বিপদমুক্ত করতে যথেষ্ট পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। উল্টো সরকার সুন্দরবনের পাশে পায়রা নদীতে আরো দুটি নতুন পাওয়ার প্লান্ট তৈরি করছে। এ ছাড়া সুন্দরবন এলাকায় নতুন নতুন শিল্প প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এজন্য সুন্দরবনের নদীগুলো ড্রেজিং করা হচ্ছে। ইউনেস্কো আশঙ্কা করছে, এর ফলে সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ পরিবেশ বিনষ্ট হতে যাচ্ছে।

সংস্থাটি জানিয়েছে, বাংলাদেশ সরকার সুন্দরবন রক্ষায় যে সফলতা পেয়েছে তা প্রয়োজনের তুলনায় অতি সামান্য।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এসআই