শুক্রবার, ০৫ জুন, ২০২০, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞার সময় বাড়ালো বেবিচক

নিজস্ব প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৮ মার্চ ২০২০, শনিবার ১০:২৭ পিএম

বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞার সময় বাড়ালো বেবিচক

ঢাকা : যুক্তরাজ্য ব্যতীত সব ইউরোপীয় দেশ থেকে যাত্রী ও ১০টি দেশ থেকে বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞার সময় ৭ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়িয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। 

শনিবার (২৮ মার্চ) এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। আগে ৩১ মার্চ পর্যন্ত নিষেধাজ্ঞা ছিল।

কার্গো ফ্লাইট যথারীতি চলবে। তবে ইউরোপ ও ১০ দেশের বাইরের বিভিন্ন গন্তব্য থেকে আকাশপথে যাত্রী আসা-যাওয়া করতে পারছে বাংলাদেশে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ জন উড়োজাহাজে চড়ে দেশে এসেছেন।

নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা ১০ দেশ হলো– কাতার, বাহরাইন, কুয়েত, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুরস্ক, মালয়েশিয়া, ওমান, সিঙ্গাপুর ও ভারত। এসব দেশ থেকে গত ২১ মার্চ রাত ১২টা থেকে ৩১ মার্চ রাত ১২টা পর্যন্ত বিমান চলাচল স্থগিত করা হয়। নতুন আদেশের ফলে ৭ এপ্রিল পর্যন্ত এই কার্যক্রম বন্ধ থাকবে।

অন্যদিকে গত ১৫ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনে বেবিচক জানায়, ১৬ মার্চ দুপুর ১২টা থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত লন্ডন ছাড়া ইউরোপের কোনও দেশ থেকে যাত্রী আনতে পারবে না কোনও এয়ারলাইনস। এর সময়ও ৭ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকতা জানান, পূর্বঘোষিত আদেশ বর্ধিতকরণ হয়েছে। যুক্তরাজ্যের ক্ষেত্রে বেবিচক কোনও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেনি। চীনের গন্তব্যগুলোর ক্ষেত্রে আগেও কোনও নিষেধাজ্ঞা ছিল না, এখনও নেই। এক্ষেত্রে বিমান সংস্থাগুলো তাদের মতো করেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করবে। হংকং ও থাইল্যান্ড রুটে যাত্রী স্বল্পতার কারণে এয়ারলাইনসগুলো তাদের ফ্লাইট স্থগিত রেখেছে। এ দুটি রুটেও বেবিচকের কোনও নিষেধাজ্ঞার আদেশ ছিল না।

তবে ইংল্যান্ড, চীন, হংকং ও ব্যাংককের সঙ্গে আকাশপথে বাংলাদেশের যোগাযোগ চালু আছে। এসব গন্তব্য থেকে যাত্রীদের আসছেন, যাচ্ছেন। হংকং ও থাইল্যান্ড রুটে যাত্রী স্বল্পতার কারণে বিমান সংস্থাগুলো তাদের ফ্লাইট স্থগিত রেখেছে।

বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাজ্যে ফ্লাইট পরিচালনা করে থাকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। ৩১ মার্চ থেকে সাতদিন লন্ডন ও ম্যানচেস্টারে ফ্লাইট বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় পতাকাবাহী এই সংস্থা। সরকারি প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, ২৯ মার্চ ঢাকা থেকে এ দুটি গন্তব্যে ফ্লাইট যাবে ও পরদিন ফিরে আসবে। এরপর স্থগিতের সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।

চীনের গুয়াংজু রুটে ফ্লাইট কমিয়েছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস। ২৯ মার্চ থেকে শুধু প্রতি রবিবার ঢাকা-গুয়াংজু রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করবে বেসরকারি এই বিমান সংস্থা। সপ্তাহে রবি, বুধ ও শুক্রবার তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করছিল ইউএস-বাংলা। প্রতিষ্ঠানটির মহাব্যবস্থাপক কামরুল ইসলাম জানান– দোহা, কলকাতা ও চেন্নাই রুটে ১৫ এপ্রিল, কুয়ালালামপুরে ১৪ এপ্রিল, সিঙ্গাপুরে ৭ এপ্রিল, মাস্কাটে ২৯ এপ্রিল ও ব্যাংকক ১৮ মে পর্যন্ত তাদের ফ্লাইট পরিচালনা স্থগিত থাকবে।

সোনালীনিউজ/এএস