শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭

বিশ্বজয়ী পেছনের নায়ককে ধন্যবাদ জানালেন মাশরাফি

ক্রীড়া প্রতিবেদক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার ০৭:৪৮ পিএম

বিশ্বজয়ী পেছনের নায়ককে ধন্যবাদ জানালেন মাশরাফি

ঢাকা : বিশ্ব জয় করে ঘরে ফিরেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলোয়াড়রা। আগের দিন তাদের রীতিমতো বীরোচিত সম্মান দিয়ে অভ্যর্থনা জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গত দুই বছর ধরে তাদের গড়তে অনেক শ্রমই দিয়েছে দেশের ক্রীড়া সংস্থাটি। কিন্তু তাদের আগেও এ খেলোয়াড়দের উঠে সাহায্য করেছেন অনেকেই। যারা রয়ে গেছেন আড়ালে। বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে সংস্করণের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা মনে করলেন তাদের। ধন্যবাদও জানাতে ভুল করেননি অধিনায়ক।

যদিও মাশরাফি তার নিজ এলাকার স্থানীয় কিছু কোচদের স্মরণ করেছেন। কারণ যুব বিশ্বকাপ জয়ী খেলোয়াড়দের একজন অভিষেক দাস উঠে এসেছেন তার এলাকা থেকেই। ফাইনাল জয়ের অন্যতম নায়কও বটে এ তরুণ। ভারতকে ১৭৭ রানে গুটিয়ে দেওয়ার মূল কারিগরই ছিলেন তিনি। ভারতীয় শিবিরে আঘাতের শুরুটা করেছিলেন তিনি। একাই তুলে নিয়েছিলেন ৩টি উইকেট। তার সম্পর্কে খুব ভালো করেই জানেন মাশরাফি। জানেন অভিষেক উঠিয়ে আনতে স্থানীয় কোচদের ভূমিকা।

তাদের একজন নড়াইল জেলার স্থানীয় বেসিক একাডেমির কোচ সৈয়দ মঞ্জুর তৌহিদ তুহিন। স্থানীয় খেলোয়াড়দের ক্রিকেটের হাতেখড়ি দিয়ে থাকেন তিনিই। অভিষেকের হাতেখড়িও ছিল দিয়েছিলেন তিনি। আর নড়াইলের আতাউর রহমান ক্রিকেট একাডেমীর কোচ সঞ্জয় বিশ্বাস সাজু করেছেন পরবর্তী পরিচর্যা। আর নড়াইল জেলাভিত্তিক কোচ ইমরুলও সবশেষ পরিচর্যার পর এনে দিয়েছেন বিসিবির তত্ত্বাবধানে। তাতেই অভিষেকের অভিষেক হয়ে ওঠা হয়েছে।

মাশরাফি এ কোচদের স্মরণ করে যেন সকল তরুণদের গড়ার পেছনের কারিগরদের স্মরণ করলেন। বৃহস্পতিবার নিজের ব্যক্তিগত ফেইসবুকে তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেছেন, ‘একজন একজন করে আকবর, তামিম, ইমন, রাকিবুল, শরিফুল, অভিষেক গড়ে তুলতে তাদের পরিবারের সাথে আরও অনেকের স্যাক্রিফাইস জড়িয়ে থাকে। অভিষেক বাড়ি ফিরেছে বাংলাদেশকে গৌরবান্বিত করে, বাড়ি ফিরেছে নড়াইলবাসিকে গৌরবান্বিত করে, ছুটে চলো তোমরা অবারিত, দেশকে নিয়ে যাও অনন্য উচ্চতায়। তুহিন কাকা, সঞ্জিব বিশ্বাস সাজু, ইমরুল ধন্যবাদ আপনাদের, আপনাদের জন্য আজ এতো স্বপ্ন দেখে সবাই। আমার চোখে আপনারা এ জাতির অদেখা নায়ক। সত্যি বলছি, আমি এটাই মনে করি।’

অভিষেককে বুকে জড়িয়ে ধরলেন মাশরাফির মা : অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে মুকুট মাথায় তোলা বাংলাদেশ দলের অন্যতম খেলোয়াড় নড়াইলের কৃতি সন্তান অভিষেক দাস অরণ্য নিজ জন্মভূমি পৌঁছেই প্রথমে ছুটে যান ক্রিকেট নায়ক নড়াইল এক্সপ্রেস খ্যাত মাশরাফি বিন মর্তুজার বাড়িতে। তখন মাশরাফির মা হামিদা মর্তুজা বলাকা অভিষেককে দৌড়ে এসে বুকে জড়িয়ে নেন। পরে নিজ হাতে তাকে মিষ্টি খাইয়ে দেন।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে যশোর বিমান বন্দরে পৌঁছান বিশ্বকাপ জয় করা ক্রিকেটর অভিষেক দাস অরণ্য। পরে সেখান থেকে নাগরিক সমাজের ব্যানারে মটরসাইকেল, জিপ গাড়ি, প্রাইভেটকারের বহনে নড়াইলে আনা হয় তাকে।

নড়াইলে পৌঁছালে পাঁচশতাধিক মোটরসাইকেল ও ফুলদিয়ে সজ্জিত একটি খোলা জিপ শোভাযাত্রা সহকারে অভিষেককে নড়াইলবাসী বরণ করে নেন। এসময় বিভিন্ন শ্রেণিপেশার কয়েক হাজার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

চলতি মাসের নয় তারিখে ভারতকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপ ছিনিয়ে আনে লাল সবুজের দল। ওই দিন বাংলাদেশের হয়ে ভারতের তিনটি ইউকেট তুলে নেয় নড়াইলের কৃতি সন্তান অভিষেক দাস অরণ্য। ভারত শিবিরে প্রথম আঘাত হানে মাশরাফির এই যোগ্য উত্তরসূরী।

সোনালীনিউজ/এমটিআই