সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬

সাপের কামড়ে এক শিক্ষার্থী আহত

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন আতঙ্কের নাম সাপ!

মোবাশ্বের আহমেদ, বেরোবি | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৪ আগস্ট ২০১৯, রবিবার ০৯:০৫ পিএম

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন আতঙ্কের নাম সাপ!

ঢাকা : সবুজে ঘেরা বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) ক্যাম্পাসে বাড়ছে বিষাক্ত সাপের উপদ্রব। শিয়াল-কুকুর এবং চোরের চেয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে সাপের উৎপাত। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকা ও ক্যাম্পাসের ঝোপঝাড় ঠিকমতো পরিষ্কারের অভাবে দিন দিন বেড়েই চলছে এই উৎপাত। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছে এখন আতঙ্কের নাম সাপ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সূত্রে জানা যায়, রবিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ থেকে নামাজ পড়ে বের হওয়ার সময়  সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী (বিভাগের ১ম ব্যাচ) মানিক মিয়াকে বিষাক্ত সাপ কামড় দিয়েছে। গুরুতর অবস্থায় মানিক মিয়াকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (রমেক) ভর্তি করা হয়েছে।

এছাড়া, দুপুরে শিক্ষক ডরমেটরির নীচ একটি সাপ দেখা যায়। তাৎক্ষনিকভাবে সাপটি তাড়াতে গিয়ে একজন শিক্ষক আহত হয়। এর আগেও কয়েকবার ওই ডরমেটরির আশেপাশে সাপ দেখতে পাওয়া যায়।

আবাসিক একজন শিক্ষক বলেন, শিক্ষকদের ডরমেটরিতে কোন ধরণের নিরাপত্তা নেই। ডরমেটরির আশেপাশে প্রচুর সাপের উৎপাত। এত শঙ্কা নিয়ে বাইরে বের হওয়া মুসকিল হয়ে পড়েছে। এর আগে গতমাসে(জুলাই) ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের অফিস কক্ষ থেকে ৬/৭ টি সাপের বাচ্চা বের করা হয়। তারও কয়েকদিন আগে একাডেমিক ভবন ৩ থেকে একটি সাপ মারা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্রুত পদক্ষেপ না নিলে যে কোনো সাপের দংশনে প্রাণহানির ঘটনা ঘটতে পারে। তাই সাপ নিধনে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

এচাড়া, বিশ্ববিদ্যালয়ের মেয়েদের হল, ছেলেদের হল, সেন্ট্রাল লাইব্রেরী, শিক্ষকদের আবাসিক ভবন, মসজিদ, ক্যাফেটেরিয়া এবং বিভিন্ন একাডেমিক ভবনের আশেপাশে প্রচুর সাপের বাসস্থান আছে। গত কয়েকদিনে এসব স্থানে কিছু বিষধর সাপ মারা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থী এবং কর্মচারীবৃন্দ। সাপের আতঙ্কে অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের বিভাগীয় প্রধানের অফিস কক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর আব্দুল্লাহ আল মাহবুব বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে আমরা প্রক্টরিয়াল বডিতে আলোচনা করেছি। আমরা খুব দ্রুত প্রশাসনের পক্ষ থেকে এটার সমাধানে ব্যবস্থা নিব।’

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue