বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন, ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬

ভারত হচ্ছে সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০১ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার ১২:২১ পিএম

ভারত হচ্ছে সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক

ঢাকা : পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কোরেশি বলেছেন, ভারত হচ্ছে সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক এবং কুলভূষণ যাদব তার একটি প্রমাণ। রোববার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম বার্ষিক অধিবেশনে দেয়া বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন।

জাতিসংঘে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ পাকিস্তানকে আক্রমণ করে বক্তব্য দেয়ার পর কোরেশি ভারতকে সন্তাসবাদের জন্য অভিযুক্ত করেন।

তিনি তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে বলেন, প্রতিবেশী দেশটি ঠুনকো অজুহাত তুলে পাকিস্তানের দেয়া শান্তি আলোচনার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। কোরেশি বলেন, ‌পাকিস্তান ও অন্য কয়েকটি দেশে ভারত সন্ত্রাসবাদ রপ্তানি করছে তার প্রমাণ হচ্ছে কুলভূষণ যাদব।

এর একদিন আগে, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা দেয়ার অভিযোগে পাকিস্তানের কঠোর সমালোচনা করেন। তিনি পাকিস্তানকে ‘পরশ্রীকাতর ও শঠ’ বলে মন্তব্য করেন।

পাকিস্তানের ভেতরে সন্ত্রাসবাদে উস্কানি দেয়ার অভিযোগে কয়েক বছর আগে আটক হয়েছে ভারতীয় গুপ্তচর কূলভূষণ যাদব।

সুষমা স্বরাজের সমালোচনার কড়া জবাব দিলেও কোরেশি ভারতের সঙ্গে সম্মানের ভিত্তিতে সুসম্পর্ক রক্ষা ও সব ইস্যুতে আলোচনার জন্য ইসলামাবাদের প্রস্তুতির কথাও জানিয়েছেন।

পাশাপাশি তিনি বলেছেন, আঞ্চলিক শান্তির ক্ষেত্রে কাশ্মির হচ্ছে সবচেয়ে বড় বাধা। ভারতীয় বাহিনী সাত দশক ধরে কাশ্মিরি জনগণের ওপর বর্বরতা চালাচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। কোরেশি আরো বলেন, পাকিস্তানের ধৈর্যের পরীক্ষা নেয়া ভারতের উচিত হবে না; ভারতীয় আগ্রাসনের আমরা জবাব দেব।

তিনি ভারতকে সতর্ক করে বলেন, সীমান্তের নিয়ন্ত্রণ রেখায় কোনো রকমের ভুল করলে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে কঠিন প্রতিশোধের মুখে পড়তে হবে।  

কোরেশি বলেন, কাশ্মির বিষয়ে জাতিসংঘের সর্বশেষ রিপোর্টেও ভারতের বর্বরতার কথা উঠে এসেছে। তিনি বলেন, ভারত ও পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে বৈঠকের একটা বিরাট সুযোগ সৃষ্টি হয়েছিল কিন্তু মোদি সরকার সংলাপ নিয়ে রাজনীতির পথ বেছে নিলো।

সুইডেনে সাম্প্রতিক ইসলাম অবমাননাকারী কার্টুন প্রতিযোগিতার কথা উল্লেখ করে পাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়টি আবারো বিভিন্ন ধর্মের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। এ ঘটনায় সারা বিশ্বের মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত লেগেছে।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue