রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ক্ষমা চাইতে বললেন চিকিৎসকরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৪ জুন ২০১৯, শুক্রবার ০৬:৪৪ পিএম

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ক্ষমা চাইতে বললেন চিকিৎসকরা

ঢাকা : ভারতের পশ্চিমবঙ্গ, নয়াদিল্লি, মুম্বাই ও হায়দরাবাদসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসকদের কর্মবিরতির মধ্যেই পশ্চিমবঙ্গের একটি সরকারি হাসপাতালের ৮০ জন চিকিৎসক পদত্যাগ করেছেন। এর জের ধরে চিকিৎসকরা বলছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) থেকেই পশ্চিমবঙ্গের চিকিৎসকরা ধর্মঘটে যোগ দিয়েছেন। চতুর্থ দিনের মতো আজ তারা ধর্মঘট পালন করছেন।

জানা যায়, মঙ্গলবার হাসপাতালে মারা যাওয়া এক রোগীর আত্মীয়রা এনআরএস মেডিকেল কলেজ হসপিটালের দুই জুনিয়র চিকিৎসককে অপদস্ত করে। এর প্রতিবাদে ধর্মঘট ডাকা হয়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারিকে না মেনে চিকিৎসকদের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, যতক্ষণ পর্যন্ত তারা নিরাপত্তা না পাবেন ততক্ষণ তারা কাজে ফিরবেন না।

শুধু এনআরএস নয় রাজ্যের সব হাসপাতালেই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। এর জের ধরেই কলকাতার আরজিকর মেডিকেল কলেজ সরকারি হাসপাতালে প্রায় ৮০ জন চিকিৎসক একযোগে ইস্তফা দিলেন। এর মধ্যে অনেক সিনিয়র চিকিৎসকও রয়েছেন।

চিকিৎসকরা বলছেন, রাজ্যের হাসপাতালগুলোতে যে পরিস্থিতি চলছে তা পুরোপুরি প্রশাসনিক ব্যর্থতা। এর দায় রাজ্য সরকার এবং মুখ্যমন্ত্রী এড়াতে পারেন না। এই দায় তাকেই নিতে হবে।

সিনিয়র চিকিৎসকদের অভিযোগ, রাজ্যের প্রত্যেকটি হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরিষেবা এবং পরিকাঠামোয় দুরবস্থা চলছে। এই অবস্থায় চিকিৎসকদের পাশে না থেকে মুখ্যমন্ত্রী যেভাবে চিকিৎসকদের হুমকি দিলেন তা তারা মেনে নিতে পারছেন না।

এমন অবস্থায় ইন্টার্নদের পাশাপাশি সিনিয়র ডাক্তাররা কার্যত রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলেন। আর তা শুরু হলো আরজিকর হাসপাতালের ৭০ থেকে ৮০ জন চিকিৎসকের গণ-ইস্তফার মধ্য দিয়েই।

সোনালীনিউজ/এমটিআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue