বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯, ৮ কার্তিক ১৪২৬

মাঠে নেমেও বার্সাকে জয় এনে দিতে পারলেন না মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার ০৮:২৭ এএম

মাঠে নেমেও বার্সাকে জয় এনে দিতে পারলেন না মেসি

ঢাকা: বল নিয়ন্ত্রণে আধিপত্য দেখাল বার্সেলোনা। বিপরীতে, পাল্টা আক্রমণে বারবারই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠল বরুশিয়া ডর্টমুন্ড। দ্বিতীয়ার্ধে তারা পেল পেনাল্টিও। কিন্তু লক্ষ্যভেদ করতে পারলেন না মার্কো রয়িস। বার্সা গোলরক্ষক মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগান করলেন আরও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সেভ। তাতে ডর্টমুন্ডের মাঠ থেকে পয়েন্ট নিয়ে ফিরল কাতালানরা। মঙ্গলবার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের 'এফ' গ্রুপের ম্যাচে সিগনাল ইদুনা পার্কে গোলশূন্য ড্র করেছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ও বার্সেলোনা।

এদিন বার্সেলোনার শুরুর একাদশে ছিলেন না লিওনেল মেসি। তার পরিবর্তে আনসু ফাতিকে খেলান দলটির কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দে। মাঠে নেমেই ইতিহাস গড়েন এই টিনএজ উইঙ্গার। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা কাতালানদের সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার এখন তিনি (১৬ বছর ৩২২ দিন)। ফাতি ভাঙেন বোজান কিরকিচের রেকর্ড। ২০০৭ সালে অলিম্পিক লিঁওর বিপক্ষে ১৭ বছর ২২ দিন বয়সে মাঠে নেমেছিলেন বোজান।

২৫তম মিনিটে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেওয়ার সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করেন জার্মান ফরোয়ার্ড রয়িস। বাঁ প্রান্ত দিয়ে থরগান হ্যাজার্ড দারুণ দক্ষতায় বল নিয়ে ঢুকে পড়েন ডি-বক্সে। এরপর পাস দেন রয়িসকে। কিন্তু তার শট নিপুণভাবে রুখে দেন টের স্টেগান। তিন মিনিট পর রয়িসের ফ্রি-কিকে স্বদেশী হামেলসের হেড ক্রসবারের বেশ উপর দিয়ে চলে যায়। বিরতির পর ৪৮তম মিনিটে কর্নার লাইনের কাছাকাছি থেকে বার্সা স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ কোণাকুণি শট নিলেও পরাস্ত করতে ব্যর্থ হন বুরকিকে। এরপর ম্যাচে বেশ আধিপত্য বিস্তার করে ডর্টমুন্ড। সেই ধারাবাহিকতায় ৫৫তম মিনিটে পেনাল্টিও আদায় করে নেয় তারা।

ডিফেন্ডার নেলসন সেমেদো সাঞ্চোকে ফাউল করলে স্পট-কিকের নির্দেশ দেন রেফারি। তবে আরও একবার হতাশ করেন রয়িস। তার শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে রুখে দেন টের স্টেগান। ম্যাচের প্রায় এক ঘণ্টা পেরিয়ে গেলে বদলি হিসেবে মাঠে নামেন বার্সার প্রাণভোমরা মেসি। চলতি মৌসুমে এটাই আর্জেন্টাইন অধিনায়কের প্রথম ম্যাচ। গত মাসে অনুশীলনের সময় পাওয়া কাফ মাসলের চোটের কারণে লা লিগার চারটি ম্যাচে খেলতে পারেননি তিনি।

৭১তম মিনিটে আলকাসের ভালো একটি সুযোগ পেলেও বল জালে জড়াতে পারেননি। চার মিনিট পর রয়িসও একই কাণ্ড করেন। মিনিটখানেক বিরতিতে যা ঘটে তার জন্য ভাগ্যকেই কেবল দুষতে পারে ডর্টমুন্ড। বদলি ফরোয়ার্ড জুলিয়ান ব্রান্ডট দূরপাল্লার জোরালো শটে পরাস্ত করেন প্রতিপক্ষ শট স্টপারকে। কিন্তু বাধা হয়ে দাঁড়ায় ক্রসবার। অতিরিক্ত সময়ের শেষ মিনিটে ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয় মেসির পায়ে। কিন্তু সুয়ারেজের পাস থেকে তার গোলমুখে নেওয়া শট প্রতিহত করেন থমাস ডেলানি। তাতে ০-০ স্কোরলাইনে শেষ হয় লড়াই।

সোনালীনিউজ/আরআইবি/এএস

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue