সোমবার, ১৭ জুন, ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬

মাদরাসার পরিত্যক্ত ঘরে শিশুকে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

শেরপুর প্রতিনিধি  | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ০৫ জুন ২০১৯, বুধবার ০৯:২৯ পিএম

মাদরাসার পরিত্যক্ত ঘরে শিশুকে ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

শেরপুর: ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসা চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ফুসলিয়ে মাদরাসার পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে ৪০ বছর বয়সী আকরাম। শিশুটির চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে। বুধবার (৫ জুন) বিকালে শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার শালমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শিশুটি ঢাকার একটি বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ালেখা করে। ঈদুল ফিতর উপলক্ষে শিশুটি তার বাবার সঙ্গে শ্রীবরদীর গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসে। বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে প্রতিবেশী আকরাম শিশুটিকে ফুসলিয়ে উপজেলার একটি মাদরাসার পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। একপর্যায়ে শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে আকরাম। এ সময় শিশুটির ডাক-চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে এসে শিশুটিকে উদ্ধার ও আকরামকে আটক করে। পরে তাকে শ্রীবরদী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

শ্রীবরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ইফতেখার রেজা বলেন, প্রাথমিক পরীক্ষায় শিশুটিকে ধর্ষণ চেষ্টার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তবে অধিকতর পরীক্ষা করার জন্য তাকে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে শ্রীবরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। আটক আকরামকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সোনালীনিউজ/ঢাকা/জেডআই

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Get it on google play Get it on apple store
Sonali Tissue