মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই, ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬

রসুল (সা.)-এর ভালোবাসায় আল্লাহর সন্তুষ্টি

 ধর্মচিন্তা ডেস্ক | সোনালীনিউজ ডটকম
আপডেট: ২৫ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার ০১:০৩ পিএম

রসুল (সা.)-এর ভালোবাসায় আল্লাহর সন্তুষ্টি

ঢাকা: আমরা যদি আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের সন্তুষ্টি অর্জন করতে চাই এবং আধ্যাত্মিক জীবনের সন্ধানী হয়ে থাকি, তাহলে চোখ বন্ধ করে মহানবী বিশ্বনবী এবং সর্বশ্রেষ্ঠ রসুল হজরত মুহম্মদ (সা.)-এর অনুসরণ-অনুকরণ করা বাঞ্ছনীয়। মহানবীর (সা.) নির্দেশাবলি এমনভাবে মেনে চলতে হবে যেন কোনো কিছু বাদ না যায়। এই মহান রসুল (সা.)-এর অনুসরণেই প্রকৃত মুক্তি নিহিত।

পবিত্র কোরআনে আল্লাহতায়ালা মহানবীর (সা.) প্রতি ভালোবাসা প্রসঙ্গে বলেছেন, ‘তোমরা যদি আল্লাহকে ভালোবাস, তাহলে তোমরা আমাকে অনুসরণ করো।

এমনটি হলে আল্লাহও তোমাদের ভালোবাসবেন এবং তিনি তোমাদের পাপ ক্ষমা করবেন। আর আল্লাহ অতি ক্ষমাশীল ও বারবার কৃপাকারী’ (সুরা আলে ইমরান, আয়াত : ৩১)। এই আয়াত থেকে স্পষ্ট, আমরা যদি খোদার ভালোবাসা অর্জন করতে চাই, তাহলে মহানবীর (সা.) অনুসরণ এবং আনুগত্য আবশ্যক।

আর খোদার ভালোবাসা সেই বিষয়, যার মাধ্যমে আধ্যাত্মিক জীবন লাভ হয়ে থাকে। তাই প্রকৃত আধ্যাত্মিক জীবন লাভের জন্য রসুলে করিমের (সা.) ডাকে সাড়া দেওয়া আবশ্যক।

মহানবী (সা.) এমন শান্তিপূর্ণ শিক্ষার বিস্তার করেছেন, যার অনুসরণে সমাজে কেবল শান্তিই বিরাজ করবে। তার পরও যদি কেউ এই মহান রসুলের অনুসারী দাবি করে সমাজে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে, সে ক্ষেত্রে এটা স্পষ্টভাবে বলা যায়, সে এই শ্রেষ্ঠ রসুলের প্রকৃত অনুসারী হওয়ার যোগ্য নয়।

মহানবীর (সা.) জীবনে ছিল পবিত্র কোরআন। আর এ কোরআনই বলে, কোনো জাতির শত্রুতাও যেন তোমাদের অন্যায়ে প্ররোচিত বা প্রবৃত্ত না করে। এই কোরআনই বলে, বিনাকারণে কারো রক্ত ঝরাবে না। কোরআনই বলে, সৃষ্টির অধিকার প্রদান করো।

কোরআন বলে, মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) ‘রহমাতুল্লিল আলামিন’ অর্থাৎ সারা বিশ্বের জন্য আশীর্বাদ। এক কথায়, আমরা যদি নিয়মিতভাবে পবিত্র কোরআন পড়তে থাকি, তাহলে তাতে সব ধরনের দিকনির্দেশনা ও পথনির্দেশনা দেখতে পাব।

ইসলামের শিক্ষা এবং রসুলুল্লাহ (সা.)-এর উত্তম আদর্শে কোনো ধরনের ত্রুটি নেই, কোনো ঘাটতি নেই। বরং পুণ্য এবং কামেল শিক্ষা। নবীরা যদি প্রাণসঞ্চার না করতেন, তাদের কথা যদি প্রাণসঞ্চারী না হয় যা সব নবী দাবি করেছেন, তাহলে আল্লাহর সত্তাতেই তো আর বিশ্বাস থাকে না।

আল্লাহপাক আমাদের সবাইকে মহানবীর (সা.) আদর্শ অনুসরণ করে জীবন পরিচালনার তৌফিক দান করুন। লেখক :আবু রোকাইয়া, প্রাবন্ধিক ও গবেষক

সোনালীনিউজ/ঢাকা/এসআই